ইউসিবিএল-এ ১০ কোটি টাকা জালিয়াতির ঘটনায় মামলার সিদ্ধান্ত

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক (ইউসিবিএল) থেকে জালিয়াতির মাধ্যমে ১০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ব্যাংকটির নয়াবাজার শাখার সাবেক ভাইস প্রিন্সিপাল (ভিপি) আলী হায়দারসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বুধবার রাষ্ট্রীয় দুর্নীতিবিরোধী সংস্থাটির নিয়মিত সভায় এ মামলার অনুমোদন দেওয়া হয়।

অপর দু’জন হলেন, ইউসিবিএলের নয়াবাজার শাখার আরেক সাবেক ভিপি মো. ইউনুস ও এফএস প্যাকেজিং নামক একটি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ফাহমিদা সুলতানা।

দুদকের উপ-পরিচালক নাসির উদ্দিন শিগগির রাজধানীর কোতোয়ালী থানায় মামলাটি দায়ের করবেন।

দুদক সূত্র জানায়, ফাহমিদা সুলতানার স্বামী নুরুল ইসলাম খান জীবিত থাকাকালে প্রতারণা-জালিয়াতি করে ভাই-বোনদের নামে থাকা রাজধানীর পূর্ব গোড়ানের ১৭ কাঠা জমি পাওয়ার অব অ্যাটর্নি, মডগেজ ডিডসহ ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে ব্যাংকে জামানত রেখে ঋণের নামে ১০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেন। জাল কাগজপত্রে ১০ কোটি টাকা ঋণ মঞ্জুর করার কাজে সহায়তা করেছিলেন ব্যাংকের নয়াবাজার শাখার সাবেক ম্যানেজার আলী হায়দার ও সাবেক কর্মকর্তা মো. ইউনুস। ব্যাংকের ১০ কোটি টাকা আত্মসাতে জাল-জালিয়াতিতে ফাহমিদা সুলতানা ও তার স্বামী নুরুল ইসলাম খান মুখ্য ভূমিকা রাখেন। ফাহমিদার স্বামী মৃত্যুবরণ করায় তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।