শীতে শিশুদের সুস্থ রাখবে যেসব খাবার

শীতের তীব্রতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমবেশি সবারই নানা ধরনের অসুখের প্রবণতা বাড়ছে। বড়দের চেয়ে শিশুরা এ সময় বেশি রোগে আক্রান্ত হয়। এ সময় শিশুদের সুস্থ রাখতে বাড়তি মনোযোগ দেওয়া জরুরি।  রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় এমন কিছু খাবার যোগ করা প্রয়োজন যা শিশুদের পুষ্টির পাশাপাশি নানা ধরনের অসুখের সঙ্গে লড়াই করার ক্ষমতা বাড়াবে। যেমন-

ফল এবং সবজি :  সব ধরনের মৌসুমি ফল এবং সবজিতে  রোগ প্রতিরোধ করার উপাদান থাকে। এতে থাকা ভিটামিন ও খনিজ শরীরকে সুস্থ রাখে।  সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই এ সময় শিশুদের সুস্থ রাখতে নিয়মিত ভিটামিন এ আর ভিটামিন সি সমৃদ্ধ পেয়ারা, কমলালেবু, পেঁপে,  মিষ্টি কুমড়া, সবুজ পাতাওয়ালা শাকসবজি, ব্রকলি খাওয়ানোর অভ্যাস গড়ে তুলুন।

টকদই : রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে টকদই দারুণ উপকারী। এতে থাকা অ্যান্টি-ফাংগাল উপকরণ সর্দি-কাশি-জ্বরের মতো সংক্রমণ থেকে বাঁচায়। সেই সঙ্গে হজমের সমস্যা দূর করে। এছাড়া এতে থাকা ভিটামিন সি হাড়-দাঁত মজবুত করে।

প্রোটিন : প্রাণিজ প্রোটিন নিয়মিত খেলে পুষ্টির ঘাটতি কমে। এ কারণে পুষ্টি মেটাতে শিশুদের নিয়মিত মাছ, মুরগীর মাংস, পনির, ডিম, দুধ  খাওয়ান।

বাদাম : আখরোট আর কাজু বাদামে পর্যাপ্ত পরিমাণে ওমেগা  থ্রি  সমৃদ্ধ ফ্যাটি এসিড পাওয়া যায়। এগুলোতে থাকা ভালো ফ্যাট ফুসফুসের সংক্রমণ রোধ করে।এ কারণে শিশুদের নিয়মিত বাদাম খাওয়ানোর অভ্যাস করুন।

মসলা : বিভিন্ন ধরনের মসলা যেমন- আদা, রসুন, হলুদে প্রচুর পরিমাণে প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায়। এগুলো শরীরকে সহজেই জীবাণুমুক্ত করে, সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচায়। শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে নিয়মিত এসব মসলা দিয়ে খাবার রান্না করে দিন।সূত্র : এনডিটিভি