১৬ জানুয়ারি মিলবে ফাইভজির অভিজ্ঞতা

দেশের মানুষ প্রথমবারের মতো পঞ্চম প্রজন্মের ইন্টারনেট সেবা বা ফাইভজি অভিজ্ঞতা পেতে যাচ্ছেন আগামী বৃহস্পতিবার। রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলায় এই সুযোগ করে দিচ্ছে মেলার টাইটানিয়াম সহযোগী হুয়াওয়ে।

তিন দিনের এ মেলায় দর্শনার্থীরা হুয়াওয়ের প্যাভিলিয়নে সরাসরি ফাইভজির গতির অভিজ্ঞতা নিতে পারবেন। হুয়াওয়ে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানানো হয়। এতে আরও বলা হয়, মেলায় আকর্ষণ হিসেবে আনা হয়েছে বিশেষ একটি রোবট, যাকে হাতের ইশারায় পরিচালনা করে খেলা যাবে ফুটবল।

হুয়াওয়ে আরও জানিয়েছে, মেলায় একটি প্লে-জোন থাকবে যেখানে সবাই ফাইভজি প্রযুক্তির মাধ্যমে রিয়েল টাইম ভিআর (ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি) উপভোগ করতে পারবেন। উন্নত প্রযুক্তি এবং অডিও কিংবা ভার্চুয়াল রিয়্যালিটির সরাসরি অভিজ্ঞতা দিতেই হুয়াওয়ের এই আয়োজন। থাকবে হুয়াওয়ের ফাইভজি স্মার্টফোনের অভিজ্ঞতা নেওয়ার সুযোগ। মুঠোফোনও কেনা যাবে।

এর আগে ২০১৮ সালের ২৫ জুলাই বাংলাদেশে ফাইভজি সেবা পরীক্ষায় মুখ্য ভূমিকা পালন করেছিল হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটির দাবি, তারা বিশ্বে শীর্ষস্থানীয় ফাইভজি প্রযুক্তি ও সেবাদাতা হিসেবে স্বীকৃত। ফাইভজির অত্যাধুনিক প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও গবেষণায় তারা বিগত ১০ বছরে ৪০০ কোটি মার্কিন ডলার ব্যয় করেছে।

হুয়াওয়ে আরও জানায়, গত সপ্তাহ পর্যন্ত বিশ্বের ৩৪টি দেশে বাণিজ্যিকভাবে ৬১টি অপারেটর ফাইভজি চালু করেছে। তার মধ্যে প্রায় ৭০ শতাংশ অপারেটরকেই সেবা দিচ্ছে হুয়াওয়ে।

ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলাটি প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় উদ্বোধন করবেন। এ বছর মেলার মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে, ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার প্রযুক্তির মহাসড়ক’।