সোনাতলায় গ্রামবাসীর স্বত:স্ফুর্ত অংশগ্রহনে নির্মিত হলো দীর্ঘ প্রতিক্ষিত রাস্তা

সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার বালুয়া ইউনিয়নের কর্ণিপাড়ায় অবশেষে গ্রামবাসীর স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহনে নির্মিত হলো দীর্ঘ প্রতিতি কর্ণিপাড়া থেকে তালতলা-বালুয়াহাট,বোছার পুকুর-বড়িয়াহাট সড়কে ওঠার রাস্তা। এর ফলে অবসান হলো কর্ণিপাড়া গ্রামের আড়াই হাজার লোকের দীর্ঘ দিনের দুঃখ-দুর্দশা। স্বাধীনতার ৪৫ বছর অতিবাহিত হলেও কর্ণিপাড়ার এলাকা বাসীর ছিলনা মূল রাস্তায় ওঠার কোন পথ ফলে দীর্ঘদিন ওই গ্রামের ছাত্র-ছাত্রীসহ সাধারণ মানুষকে সীমাহীন কষ্ট পোহাতে হতো।
অবশেষে ইউপি সদস্য মেনেকা বেগম কাজলের উদ্যোগে ২৫০ ফিট রাস্তাটি নির্মানের পদপে নেওয়া হয়। কিন্তু রাস্তাটি
নির্মানে সকলেই জমি প্রদান করলেও একটি পরিবার বাঁধা প্রদান করে। এর প্রতিবাদে গত শনিবার মানব বন্ধন কর্মসুচি পালন করে কর্ণিপাড়া এলাকাবাসী। তারা বিষয়টি অবগত করে উপজেলা প্রশাসনসহ সংস্লিষ্ট কর্তৃপকে। এব্যাপারে রবিবার কয়েকটি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। সোমবার সকালে গ্রামবাসী ইউপি সদস্য কাজলের নেতৃত্বে একত্রিত হয়ে কোদাল, ডালি, নিয়ে রাস্তা নির্মানের জন্য নেমে পড়ে এবং সম্পন্ন করে ২৫০ ফিট কাঁচা রাস্তার নির্মান কাজ। এদিকে রাস্তা নির্মান চলাকালে বাঁধা প্রদান করে জমি প্রদানে বিরোধীতাকারী সারোয়ার হোসেনের লোকজন । এতে উভয় পে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এসময় সোনাতলা থানার এসআই সাজ্জাদ হোসেন পুলিশ ফোর্সসহ উপস্থিত হয়ে উভয় পকে নিবৃত করে। রাস্তা নির্মান কাজে বাঁধা দেওয়ার ঘটনায় এলাকায় টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে।