ভার্চ্যুয়াল কোর্টে ৩৪৪৭ জনের জামিন,বালিশকাণ্ডে জামিন মেলেনি ঠিকাদার

রায়হান কবির রবিন, উত্তরবঙ্গ নিউজ ডট কম, জেলা প্রতিনিধি বগুড়াঃ নিজস্ব প্রতিবেদন,আজ ১৮ মে ২০২০ইং রোজঃ সোমবার। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে সারা দেশের অধস্তন আদালত থেকে গতকাল রোববার বিভিন্ন মামলায় ৩ হাজার ৪৪৭ জন জামিন পেয়েছেন। পৃথক ফৌজদারি মামলায় হাইকোর্ট থেকে ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে শুনানির মাধ্যমে ১১ জন অন্তর্বর্তীকালীন জামিন পেয়েছেন। এ হিসাবে ৩ হাজার ৪৫৮ জন জামিন পেয়েছেন। রূপপুর পারমাণবিক বিদুৎ প্রকল্পের একটি ভবনের আসবাবপত্রসহ অন্যান্য সামগ্রী অস্বাভাবিক দামে কেনার অভিযোগে দুদকের দুই মামলায় জামিন পাননি ঠিকাদার। এর আগে ১১ মে থেকে এই কার্যক্রম শুরু হয়। এ হিসাবে আজ কার্যক্রমের পঞ্চম দিন। সুপ্রিম কোর্ট মুখপাত্র মোহাম্মদ সাইফুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, রোববার সারা দেশের অধস্তন আদালতে ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে ৪ হাজার ৬৬৪টি জামিন আবেদনের শুনানি ও নিষ্পত্তি হয়। এর মধ্যে ৩ হাজার ৪৪৭ জনের জামিন মঞ্জুর হয়েছে। তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, কার্যক্রম শুরুর পর ১১ মে কুমিল্লার জেলা জজ আদালতে ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে এক মামলায় একজনের জামিন মঞ্জুর হয়। পরদিন সারা দেশের অধস্তন আদালতে ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে শুনানির মাধ্যমে ১৪৪ জনের জামিন হয়। তৃতীয় দিনে ১৩ মে সারা দেশের অধস্তন আদালতে বিভিন্ন মামলায় ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে ১ হাজার ১৩ জনের জামিন মঞ্জুর হয়। ১৪ মে চতুর্থ দিনে সারা দেশের অধস্তন আদালত থেকে বিভিন্ন মামলায় ১ হাজার ৮২১ জন জামিন পান। এ হিসাবে অধস্তন আদালতে ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে জামিন শুনানি ও নিষ্পত্তি বাড়ছে। হাইকোর্টে ৩৯ আবেদন, ১১ জনের জামিন এদিকে হাইকোর্টের পৃথক দুটি বেঞ্চে গতকাল ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে শুনানির জন্য ৩৯টি জামিন আবেদন উপস্থাপিত হয়। এর মধ্যে বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিমের হাইকোর্ট বেঞ্চে ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে ২৯টি আবেদন শুনানির জন্য ওঠে। শুনানি নিয়ে ১১ জনকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিয়েছেন এই বেঞ্চ। আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্রের তথ্য, হাইকোর্টের ওই বেঞ্চে শুনানির জন্য ওঠা ২৯টি আবেদনের মধ্যে অপর ৯টি আবেদনের কোনোটিতে আইনজীবী সময় নেন আবার কোনোটিতে আবেদনকারীদের আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন না। আর গুরুত্ব বিবেচনা করে অপর নয়টি ক্ষেত্রে নিয়মিত বেঞ্চে (আদালত খোলার পর) আবেদন উপস্থাপন করতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চে আজ ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে ১০টি আবেদন শুনানির জন্য ওঠে। ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতিতে শুনানি নিয়ে আদালত এর মধ্যে দুটি আবেদনে নো অর্ডার দেন, একটিতে নট টুডে (রোববার নয়) এবং অপর তিনটি আবেদন কার্যতালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন। আর গুরুত্ব বিবেচনায় অপর পাঁচটি আবেদন নিয়মিত বেঞ্চে উপস্থাপন করতে বলা হয়েছে। বালিশকাণ্ড, জামিন হয়নি ঠিকাদারের পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদুৎ প্রকল্পের একটি ভবনের আসবাবসহ অন্যান্য সামগ্রী অস্বাভাবিক দামে কেনার অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের করা দুই মামলায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সাজিন কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহাদত হোসেন হাইকোর্ট থেকে জামিন পাননি। বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিমের ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে গতকাল রোববার শাহাদতের জামিন আবেদনের ওপর শুনানি হয়। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী শফিক আহমেদ ও মাহবুব শফিক। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ কে এম ফজলুল হক। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোঃ বশির উল্লাহ। পরে বশির উল্লাহ প্রথম আলোকে বলেন, গত বছরের ১২ ডিসেম্বর পাবনায় দুদক ওই মামলা দুটি করে। নিম্ন আদালতে বিফল হয়ে হাইকোর্টে জামিন চান শাহাদত। হাইকোর্ট জামিন না দিয়ে নিয়মিত বেঞ্চে আবেদন উপস্থাপন করতে বলেছেন। কারাবন্দী ও কারারক্ষীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা চেয়ে রিট দেশের সব কারাবন্দী ও কারারক্ষীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন জমা দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী। আজ রোববার বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে ই-মেইলের মাধ্যমে রিটটি জমা দেন আইনজীবী শিশির মনির। এতে স্বরাষ্ট্রসচিব, আইনসচিব, পুলিশ মহাপরিদর্শক ও কারা মহাপরিদর্শকে বিবাদী করা হয়েছে। পরে শিশির মনির বলেন, গণমাধ্যমের খবর অনুসারে দেশের কারাগারগুলোয় প্রায় ৮৯ হাজার কারাবন্দী আছেন, অথচ কারাগারে বন্দী ধারণক্ষমতা ৪১ হাজার ২৪৪ জন। এ হিসাবে দ্বিগুণের বেশি বন্দী কারাগারে আছেন। কারাবন্দী ও কারারক্ষীদের ক্ষেত্রে যথাযথভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ও তাঁদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতের নির্দেশনা চেয়ে রিটটি করা হয়। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে কী পদক্ষেপ নিয়েছে, তা জানিয়ে আদালতে প্রতিবেদন দিতেও নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে রিটে।