সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত, বাড়ছে তীরবর্তী মানুষের আতঙ্ক

সিলেট প্রতিনিধি :: তিন দিনের টানা ভারী বর্ষণ ও উজানের পাহাড়ি ঢলে সুরমা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। আজ রবিবার (২৮ জুন) কানাইঘাট সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ১১৭ সে. মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ইতোমধ্যে কানাইঘাট উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।
এভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে পুরো কানাইঘাট জুড়ে ভয়াবহ বন্যা দেখা দিতে পারে। উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের কারনে সুরমা ও লোভা নদীর তীরবর্তী বিভিন্ন এলাকায় নদী ভাঙ্গনের খবর পাওয়া গেছে। অব্যাহত পানি বাড়ায় নদীর তীরবর্তী মানুষজন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন।
বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রাপ্ত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রাজাগঞ্জ ইউনিয়ন, ঝিঙ্গাবাড়ী ইউনিয়ন, বাণীগ্রাম ইউনিয়ন, দিঘীরপাড় পূর্ব, সদর ইউনিয়ন, সাতবাঁক, বড়চতুল, লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ও লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল বানের পানিতে তলিয়ে গেছে । বেশ কিছু সবজি বাগান, আমন ধানের বীজতলার ক্ষতিসাধনের খবর পাওয়া গেছে। পৌরসভার গুরুত্বপূর্ণ ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের বেশ কিছু এলাকায় ব্যাপক জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। পানি নিষ্কাশনের কোন ধরনের ব্যবস্থা না থাকায় অনেক বাসা-বাড়ির লোকজন পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তানভীর আহমদ সরকারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ বারিউল করিমসহ তিনি উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউনিয়নের সুরাইঘাটসহ লোভাছড়া চা-বাগান এলাকা, বড়চতুল ইউনিয়নের বিভিন্ন ও পৌরসভার আংশিক এলাকা পরিদর্শন করে সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষন করেছেন।