বগুড়া সদরের লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের দুর্বৃত্তদের হামলায় নারী, পুরুষ ও শিশুসহ আহত ৬

স্টাফ রিপোর্টারঃ মঙ্গলবার দুপুরে বগুড়া সদরের লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের রহমতবালা গ্রামে দূর্বৃত্তদের হামলায় একই পরিবারের নারী, পুরুষ ও শিশু সহ ৬/৭ জন আহত,থানায় অভিযোগ।
বগুড়া সদর থানার অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, রহমতবালা গ্রামের বুলু মিয়ার পুত্র একরাম হোসেন ৫/৬ বছর পূর্বে একই ইউনিয়নের বুজরুক মাঝিড়া ( ধাওয়াকান্দী) গ্রামের ছামছুল হকের মেয়ে শাকিলাকে বিয়ে করে। ম্বামী স্ত্রীর মধ্যে সামান্য ঝগড়ার সুত্র শাকিলা গত ১ মাস পূর্বে ৩০ হাজার টাকা নিয়ে বাবার বাড়ীতে চলে যায়। শাকিলা তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ীর লোকজনকে শায়েস্তা করার জন্যর মঙ্গল বার সকাল ৯ টায় ও দুপুর ১২ টায় সন্ত্রাসী বাহিনী পাঠিয়ে দিয়ে একরামের পরিবারের নারী পুরুষ ও শিশু সহ ৬/৭ জনকে দেশীয় অস্ত্র লাঠিশোঠা ও লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারপিট রক্তাক্ত জখম করে। আহতরা হলো বুলু মিয়ার পুত্র একরাম হোসেন, তার শিশু পুত্র আকাশ(৪), বুলু মিয়া(৬৫) তার স্ত্রী আকিমা(৫০) , তার পুত্র খোকন ও তার স্ত্রী শারমিন । এবিষয়ে একরাম হোসেনে সাথে কথা বললে তিনি জানান লাহিড়ী পাড়া ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার কামাল হোসন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী ১৫/২০ টি মোটর সাইকেল নিয়ে আমাদের বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে আমাদের সবাইকে বেধড়ক মারপিট করে রক্তাক্ত গুরুতর জখম করে৷ তাদের বিরুদ্ধে আমি থানায় অভিযোগ দিয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওযার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানাচ্ছি।