পলাশবাড়ীতে ভূমি দস্যুদের ভয়ে ভিটে ছাড়া একটি অসহায় পরিবার

পলাশবাড়ী (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের পুটিমারী গ্রামের অসহায় দিনমজুর কছর আলির দুই ছেলে আব্বাস আলি ও কদ্দুছ আলি সন্ত্রাসী ভূমি দস্যুদের ভয়ে পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া ভোগ দখলীয় জমি ছেড়ে দিয়ে মিথ্যা মামলার বোঝা মাথায় নিয়ে আসামী হয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,মনির মুন্সি ও কাসেম মুন্সির নিকট দাখিলা মূলে ৩৮ শতক জমি ১৯৫৬ সালে দাখিলা মূলে ক্রয় করে ও করিম মুন্সির নিকট হতে সাড়ে ১৮ শতক জমি কবলা মূলে ১৯৬৬ সালে ক্রয় করে কছর উদ্দিন ভোগ দখল করে আসছিল।তার মূত্যুর পর তার দুই ছেলে আব্বাস আলি ও কদ্দুছ আলি পৈত্রিক সূত্রে ভোগ দখল করে আসছে।উক্ত জমির মধ্য হতে ১০ শতাংশ জমি আব্বাস আলি ও কদ্দুছ আলি আসামী পক্ষের নিকট বিক্রি করেন।কিন্তু মনির মুন্সি ,কাসেম মুন্সি ও করিম মুন্সির ওয়ারিশগণ জোর পূর্বক এক ভাড়াটিয়ে সন্ত্রাসী দিয়ে গত ২২ এপ্রিল /২০১৫ইং বুধবার সকালে উক্ত ১০ শতাংশের স্থলে পুরো জমিতে অনাধিকার প্রবেশ করে পাকা ধান কর্তন করে দখলে নেওয়ার চেস্টা করে।এ সময় আব্বাস আলি সহ তার লোকজন বাধা দিলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে আব্বাস আলি সহ ৪ জন গুরুত্বর আহত হয়।এ ব্যাপারে আব্দুল কদ্দুছ পলাশবাড়ী থানায় মামলা করতে গেলে আসামীদের নিকটতম আতœীয় থানায় চাকুরী করায় থানায় মামলা না নিলে অবশেষে আব্দুল কদ্দুছ বাদী হয়ে বিজ্ঞ আমলী আদালত আশরাফুল,শাহজাহান,আব্দুল হাদী,হালিমসহ ১১ জনকে আসামী করে ২৯/০৪/২০১৫ইং সি আর মামলা নং ৯৬/১৫ দায়ের করেন।উক্ত মামলা দায়ের করার পর থেকে সন্ত্রাসী ভূমি দস্যুরা ক্ষিপ্ত হয়ে উল্লেখিত অসহায় পরিবারটির বিরুদ্ধে পলাশবাড়ী থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।এই মিথ্যা মামলার ভয়ে তারা নিজস্ব বাড়িঘড় ছেড়ে পুলিশী গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।