এ সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলেই ত্রাণ বিতরণে বাধা দিচ্ছে-এমপি সিরাজ

প্রেস রিলিজ: বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক ও বগুড়া-৬ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ বলেন, এ সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলেই পুলিশ বাহিনী দিয়ে বিএনপির ত্রাণ বিতরণে বাধা দিচ্ছে। আজ বগুড়ার আলতাফুন নেছা খেলার মাঠে ৬০০ জন গরীব, অসহয় ও কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রান বিতরণ করার জন্য স্লিপ দেওয়া হয়েছিলো কিন্তু স্থানীয় পুলিশের অনুমতি না দেওয়ায় ও তাদের বাধার মুখে উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে আজ দলীয় কার্যালয়ে ৩০ জনের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতারণ করা হলো। এই স্বল্প পরিসরে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করে ত্রান সামগ্রী বিতারণের কার্যক্রম শুরু করলাম। এই মহামারীর মধ্যে সরকারের লোকজন ত্রাণের চাল চুরি করছে। চারদিকে চাল চুরির হিড়িক পড়েছে। আসলে জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলেই ক্ষমতাসীন সরকারের কোনো জবাবদিহি নেই। বিএনপি’র ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বগুড়া জেলা বিএনপি আয়োজিত ৫ দিনব্যাপী কর্মসূচির ২য় দিন গতকাল রবিবার সকালে দলীয় কার্যালয়ে গরীব, অসহয় ও কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রান বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্যে তিনি উক্ত কথা বলেন। তিনি বলেন, দেশব্যাপী সরকারদলীয় লোকজনদের দ্বারা ত্রাণ সামগ্রী চুরির ঘটনা ঘটছে এবং তা গণমাধ্যমে প্রকাশিত হচ্ছে। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ভ্রুক্ষেপহীন থাকছে। এই প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেও পুলিশি ক্ষমতার যথেচ্ছ প্রয়োগ থেমে নেই। বগুড়া পৌরসভা ও সদর উপজেলায় ২ হাজার পরিবারের মাঝে আমাদের ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সাবেক এমপি মোঃ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এ্যাড. সাইফুল ইসলাম, উপস্থিত ছিলেন বগুড়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য মোশাররফ হোসেন, বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য রেজাউল করিম বাদশা, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা, জয়নাল আবেদীন চাঁন, বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এম আর ইসলাম স্বাধীন, কেএম খায়রুল বাশার, সহিদ উন নবী সালাম, জিয়া শিশু-কিশোর সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক মোশাররফ হোসেন চৌধুরী, বগুড়া জেলা যুবদলের আহ্বায়ক খাদেমুল ইসলাম খাদেম, যুগ্ম আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক এ বি এম মাজেদুর রহমান জুয়েল, যুগ্ম আহবায়ক সরকার মকুল, বিএনপির নেতা রস্তম আলী, শ্রমিকদলের লিটন শেখ বাঘা, মৎসজীবিদলের আহ্বায়ক ময়নুল হক বকুল, যুবদলনেতা আহসান হাবীব মমি, অতুল চন্দ্র, শাহনেওয়াস শাসন, সুজন,জুম্মন, সোহাগ, সৌরভ হাসান শিবলু, জাহাঙ্গীর মানিক, ছাত্রদল নেতা তারিক মজিদ মোহাগ, সরকার সিফাত, আল মামুন, সন্ধান সরকার প্রমুখ।