ঝিনাইদহে ভ্রাম্যমাণ আদালতের হানায় বাল্য বিবাহ বন্ধ,কনের বাবা ও বরকে জেল

প্রতিনিধি ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ব্রক্ষপুর গ্রামে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বাল্য বিবাহ দেবার অপরাধে মেয়ের বাবা ইমদাদুল ও বর সাগর আলীকে ৭ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে কাজী পালিয়ে যায়। মৌবন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী তানজিরা খাতুনের বাল্য বিবাহও বন্ধ করা হয়। মঙ্গলবার রাতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ব্রক্ষপুর গ্রামে ইমদাদুল হকের মেয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রী তানজিরা খাতুনকে নওগাঁ জেলার কানুইল গ্রামের সাগর আলীর সাথে বাল্য বিবাহের আয়োজন করে। এ খবর পেয়ে সেখানে সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস এম মুনিম আহমেদ লিংকন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মেয়ের বাবা ও বরকে ৭ দিন করে কারান্ড প্রদান করেন এবং বাল্য বিবাহটি বন্ধ করেন।