ইউরোপীয় কমিশনের সহায়তা ২০২১ সাল পর্যন্ত বাড়ানোর প্রস্তাব

ইউরোপীয় কমিশন করোনাভাইরাস প্রেক্ষাপটে ১৯ মার্চ গৃহীত ইইউ সদস্য রাষ্ট্রসমূহের অস্থায়ী সহায়তা কার্যক্রম (স্টেট এইড টেম্পোরারি ফ্রেমওয়ার্ক), ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানোর প্রস্তাবে সদস্য রাষ্ট্রগুলিতে পরামর্শের জন্য চিঠি পাঠিয়েছে।

ইউরোপীয় কমিশনের সদস্য রাষ্ট্রসমূহের অস্থায়ী সহায়তা কার্যক্রমগুলো হচ্ছে- সদস্য রাষ্ট্র প্রত্যক্ষ অনুদান অসুবিধা এবং অগ্রিম অর্থ প্রদানের অংশ হিসেবে যে কোনো ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে তারল্য সংকটের জন্য সর্বোচ্চ ৮ লাখ ইউরো পর্যন্ত তহবিল প্রদান করতে পারবে।

সদস্য রাষ্ট্রপ্রতিষ্ঠান বা গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী ঋণ সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংককে রাষ্ট্রীয় গ্যারান্টি দিতে সক্ষম হবে।

সদস্য দেশগুলো ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠানকে স্বল্প সুদে ঋণ প্রদান করতে সক্ষম হবে এবং ঋণ ব্যবসা এর চলতি মূলধন এবং বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। তাছাড়া সদস্য রাষ্ট্রের ব্যাংকগুলোর সক্ষমতা বাড়ানোসহ আরও বিভিন্ন কার্যক্রম যা সদস্য রাষ্ট্রগুলোর অর্থনীতিকে সামঞ্জস্যপূর্ণ করবে।

এই কর্মসূচির আওতায় ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সদস্য রাষ্ট্রের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের স্থায়ী ব্যয় এবং চলতি মূলধনের যোগানের জন্য স্বল্প সুদে এবং দীর্ঘমেয়াদি কিস্তিতে এ ঋণ সুবিধা পেয়েছেন এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে রাষ্ট্রভেদে অনুদান হিসেবে ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার জন্য এককালীন সহযোগিতা করা হয়েছে। তাছাড়া প্রয়োজন ক্ষেত্রে লে অব এর মাধ্যমে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান এবং চাকরির বাজার টিকিয়ে রাখা হয়েছে।

প্রতিযোগিতামূলক নীতিমালার (ইনচার্জ অব কম্পেটিশন পলিসি) দায়িত্বে থাকা নির্বাহী ভাইস-প্রেসিডেন্ট মার্গ্রেথ ভেস্টেগার বলেছিলেন, ‘গত সাতমাসে আমাদের অস্থায়ী রাষ্ট্র সহায়তা কার্যক্রম করোনা সঙ্কটের ফলে সদস্য রাষ্ট্রের ব্যবসার জন্য প্রায় ৩ ট্রিলিয়ন পর্যন্ত ইউরো সহযোগিতা প্রশস্ত করেছে’।

সঙ্কটের প্রভাবগুলি কিছু সময়ের জন্য আমাদের সাথে থাকবে। এজন্য আমরা ইইউর সিঙ্গেল মার্কেটকে রক্ষা করার সময় পরবর্তী বছরের মাঝামাঝি পর্যন্ত অস্থায়ী কাঠামো দীর্ঘায়িত করার এবং এটি ব্যবসায়ের ক্রমাগত প্রয়োজনের সঙ্গে সামঞ্জস্য করার প্রস্তাব দিচ্ছি। সমস্ত সদস্য রাষ্ট্রের দৃষ্টিভঙ্গি বিবেচনায় নিয়ে আমরা এগিয়ে যাওয়ার পথে সিদ্ধান্ত নেব’।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য প্রাসঙ্গিক পণ্য গবেষণা, পরীক্ষা ও উৎপাদন, চাকরি রক্ষায় এবং অর্থনীতিকে আরও সহায়তা করার জন্য জনগণের সমর্থনের সম্ভাবনা বাড়ানোর জন্য অস্থায়ী কাঠামোটি প্রথম ৩ এপ্রিল ২০২০ সংশোধন করা হয়।

চলতি বছরের ৮ মে কমিশন একটি পুনঃমূলধন ও অধীনস্থ দেনা ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অস্থায়ী কাঠামোর সুযোগ বাড়িয়ে দ্বিতীয় সংশোধনী গ্রহণ করে এবং গত ২৯ জুন কমিশন ক্ষুদ্র, ছোট এবং স্টার্টাপ সংস্থাগুলিকে আরও সহায়তা এবং বেসরকারি বিনিয়োগকে উৎসাহিত করার জন্য অস্থায়ী কাঠামোর পরিধি বাড়িয়ে একটি তৃতীয় সংশোধনী গ্রহণ করে। অস্থায়ী কাঠামোটি চলতি বছরের ৩১ শে ডিসেম্বর এর মেয়াদ শেষ হবে।

 

সর্বশেষ সংবাদ