শৈলকুপায় পানি উন্নয়ন বোর্ড’র উদাসীনতায় খালের পাড় ভেঙ্গে এলজিইডি‘র পাকা সড়কে ধ্বস

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)‘র উদাসীনতায় খালের পাড় ভেঙ্গে এলজিইডি‘র পাকা সড়ক ধ্বসে পড়েছে। ঘটনাটি উপজেলার ধলরাহচন্দ্র ইউনিয়নের কুশবাড়িয়া গ্রামে। এ ধ্বসে ওই এলাকাসহ আশপাশের কয়েকটি ইউনিয়নের শত শত মানুষের যাতায়াত চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, উপজেলার হুদাকুশবাড়িয়া ও কুশবাড়িয়া গ্রামের মাঝ দিয়ে ডি-৪কে খাল বহমান। খালে পানি ধরে রাখতে গত অর্থ বছরে গভীরভাবে খাল খনন করে পাউবো। তবে পাড়ে মাটি না থাকায় অতিবৃষ্টির চাপে এলজিইডি‘র প্রধান পাকা সড়কটি ধ্বসে খালের ভিতর চলে গেছে। এতে করে জনদূর্ভোগে পড়েছে ওই এলাকার জনগণ। ওই সড়ক ধরে আশপাশের ৪-৫টি ইউনিয়নের প্রায় ৫০টি গ্রামের শত শত মানুষ প্রতিদিন যাতায়াত করে থাকে। অটোভ্যান, ইজিবাইক ও ট্রাকের মতো ভারি যানবাহন চলাচল করে এই সড়ক ধরে। সড়কটির কোলঘেষে গ্রাম্যবাড়িঘর, অপরপাশে পাউবো‘র গভীর ড্রেনেস খাল। স্থানীয়রা জানান, নদীর মতো গভীরভাবে খাল খনন করেছে পাউবো। তবে খালের দু‘পাড়ে কোন মাটি না থাকায় বৃষ্টিতে সড়ক ও ঘরবাড়ি ভেঙ্গে যাচ্ছে। অতি দ্রুত এই ভাঙ্গণ রোধ করা না গেলে যখন তখন ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। এমনকি প্রাণহানির সংখ্যাও প্রকাশ করেন স্থানীয়রা। ধলরাহচন্দ্র ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান জানান, প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত খালে পানি ধরে রাখতে গভীরভাবে খনন করে পাউবো। অতিবৃষ্টির কারণে পাড়ে মাটি না থাকায় সড়কের এমন ভাঙ্গণ সৃষ্টি। পাউবো‘র উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি বার বার অবহিত করলেও এবিষয়ে তারা ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। পাউবো‘র জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী সরোয়ার জাহান সুজন মুঠোফোনে জানান, উপজেলার ধলরাহচন্দ্র ইউনিয়নে খালের পাড় ধ্বসে এলজিইডি‘র সড়কে ভাঙ্গণ বিষয়ে আমি শুনেছি। আগামীকাল (মঙ্গলবার) ঘটনাস্থল পরির্দশন করে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।