ক্রিকেট বলে স্যানিটাইজার ব্যবহার

ক্রিকেট বলে স্যানিটাইজার লাগানোর ঘটনায় সাসেক্সের পেসার মিচেল ক্ল্যাডনকে নিষিদ্ধের পর, বড় শাস্তি পেল তার দল সাসেক্সও। ২৪ পয়েন্ট কর্তন করা হয়েছে কাউন্টির এ ক্লাবটির।

করোনাকালে বিশ্বজুড়ে বেড়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের কদর। ঘরে কিংবা বাইরে, অফিস কিংবা আদালতে সঙ্গে থাকা চাই এই জিনিসটি। তবে মাঝে মাঝে এই স্যানিটাইজারও ব্যবহৃত হচ্ছে ভিন্ন কাজে। আর যা করতে গিয়েই ফেঁসে গেলেন, সাসেক্সের অস্ট্রেলিয়ান বংশোদ্ভূত পেসার মিচেল ক্ল্যাডন। নিজে তো ডুবলেন সঙ্গে ডোবালেন ক্লাবকেও।

ঘটনাটা ঘটেছিল বব উইলিস ট্রফির সাসেক্স ও মিডলসেক্সের মধ্যকার ম্যাচে। খেলোয়াড়দের হাতকে জীবাণুমুক্ত করতে সীমান লাইনের পাশের রাখা হয়েছিল হ্যান্ড স্যানিটাইজার। তবে মহৎ এই উদ্দেশ্যর অপব্যবহার করলেন ক্ল্যাডন। বলের শাইন বাড়াতে ব্যবহার করলেন স্যানিটাইজার। ফলাফল ৯ ম্যাচের জন্য হয়েছিলেন নিষিদ্ধ।

আগস্টের ওই ঘটনার পর নড়েচড়ে বসেছিল সিসিডি। একাধিক দফায় হয়েছিল তদন্ত আর সাক্ষ্যগ্রহণ। ক্ল্যাডনের সঙ্গে তারা তার ক্লাব সাসেক্সকেও দাঁড় করানো হয় কাঠগড়ায়। কেটে নেয়া হয় ২৪ পয়েন্ট। ফলে সাসেক্সের পয়েন্ট এখন মোটে ১২। নেমে গেছে টেবিলের ৬ নম্বরে।