জয়পুরহাটে হত্যা মামলার ৪ আসামি গ্রেফতার

জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার হোপের হাট এলাকায় ব্যাটারি চালিত অটোভ্যান ছিনতাই করে আবুল হোসেন (৩৩) নামে এক চালককে হত্যার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় জয়পুরহাট জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবীর তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য দেন।

তারা হলেন-জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার মাত্রাই মণ্ডল পাড়া গ্রামের মৃত. আব্দুল জোব্বার মণ্ডলের ছেলে মুনসুর রহমান (৩৫), গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বারসাও গ্রামের মৃত. আব্বাস সরকারের ছেলে আবু সাঈদ (৩৭), একই গ্রামের আন্তাজ আলীর ছেলে আনিছুর রহমান (৪০), মৃত. অনিল চন্দ্র বর্মনের ছেলে ছোটন চন্দ্র বর্মন ও সামছুল আলম ঠান্ডার ছেলে আব্দুল মতিন (২৮)।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবীর জানান, চলতি বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর জয়পুরহাট সদর উপজেলার কাদোয়া ঢোলপাড়া গ্রামের মৃত. আব্দুল জলিল মণ্ডলের ছেলে আবুল হোসেনকে (৩৩) রাত সাড়ে ৭টার দিকে কয়েক জন দুষ্কৃতিকারী হত্যা করে। এরপর তার মরদেহ ক্ষেতলাল উপজেলার হোপের হাট হারাবতি নদীতে ফেলে দিয়ে ভ্যানটি নিয়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে নিহতের ভাই ২৫ সেপ্টেম্বর ক্ষেতলাল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ছিনতাই হওয়া ভ্যানের খুচরা যন্ত্রাংশসহ মুনসুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। এরপর তার দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অপর ৪ আসামিকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান পুলিশ সুপার।

এদের মধ্যে ইতোমধ্যেই মুনসুর রহমান ও আব্দুল মতিন সংশ্লিষ্ট আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। বাকি ৩ জনকেও পর্যায়ক্রমে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করা হবে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।