কাহালুতে গৃহবধুকে ধর্ষন অশ্লীন ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ায় গ্রেফতার-১

কাহালু(বগুড়া)সংবাদদাতাঃ কাহালু উপজেলার পিলকুঞ্জ পাকুড়া পাড়ায় এক দরিদ্র গৃহবধুকে ধর্ষনের পর দু-লম্পট গৃহবধুর অশ্লীন দৃশ্য ধারন করে চারিদিকে ছড়িয়ে দিয়েছে। এই ঘটনায় নির্যাতিত গৃহবধু গত সোমবার কাহালু থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন এবং পর্নোগ্রাফি আইনে দুটি মামলা দায়ের করেছে। ইতি মধ্যে গতকাল শরিফুল ইসলাম পলাশ (২২) নামের এক লম্পটকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পলাশ উপজেলা পিলকুঞ্জ পাকুড়া পাড়ার আঃ রহমান সখিনের পুত্র। ধর্ষিতা গৃহবধু জানান গত ২৫ জুলাই রাতে তার বাড়িতে যায় শরিফুল ইসলাম পলাশ ও রাশেদুল ইসলাম। গৃহবধু কিছু বুঝে উঠার আগেই তার ঘরের দরজা আটকিয়ে দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে তারা গৃহবধুকে ধর্ষন করে। ধর্ষনের পর পলাশ গৃহবধু ও রাশেদুলের অশ্লীন দৃশ্য ভিডিও করে বিভিন্ন জনের কাছে ছড়িয়ে দেয়। এদিকে ধর্ষক ও ভিডিও ধারনকারী প্রভাবশালী হওয়ায় নির্যাতিত অসহায় গৃহবধুকে নানা প্রকার হুমকিও দেওয়া হচ্ছে যাতে এই ঘটনার জন্য মামলা না করে। গৃহবধু কাঁন্না জড়িত কন্ঠে জানান, গ্রামের মাতব্বরা ধর্ষক ও অশ্লীন ভিডিও ধারনকারীর বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো আমাকে গ্রাম ছাড়ার হুমকি দিয়েছে। কাহালু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ নুর-এ-আলম সিদ্দিকী জানান অপরাধী যতই শক্তিশালী হোক তাকে কোন ছাড় দেওয়া হবেনা। এই মামলার মুল আসামী রাশেদুলকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।