ফসলের সঙ্গে শক্রতা

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে পূর্ববিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ বিষ প্রয়োগ করে প্রায় তিন বিঘা জমির আমণ ধানের রোপণকৃত চারা নস্ট করে দিয়েছে। গত শনিবার তানোরের পাচন্দর ইউপির কচুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় গত রোববার এ ঘটনায় সোনা কাজি বাদি হয়ে কচুয়া নামপাড়া গ্রামের মৃত কবির উদ্দীনের পুত্র সাদিকুল ইসলাম ও তার স্ত্রী বুলবুলি বেগকে বিবাদী করে তানোর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। এদিকে ধানখেতে বিষ প্রয়োগের খবর ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসির মধ্যে চরম উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে। গ্রামবাসি সাদিকুলকে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, তানোরের পাচন্দর ইউপির কচুয়া গ্রামের বাসিন্দা হাজী তৈয়ব আলীর পুত্র সোনা কাজি কচুয়া মৌজায়, খতিয়ান নম্বর ১৩৪১, হোল্ডিং নম্বর ১৩৬৬ আরএস২৯৩ এবং আরএস দাগ নম্বর ১৩২৫, শ্রেণী কৃষি, পরিমাণ ৯১ শতক। উক্ত সম্পত্তি সোনা কাজি নিজ নামে খারিজ-খাজনা পরিশোধ করে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখল করে আসছেন। এবছরও তিনি এসব জমিতে আমণ চারা রোপণ করেছেন। কিšত্ত পূর্ববিরোধের জের ধরে কচুয়া নামপাড়ার মৃত কবির উদ্দীনের পুত্র সাদিকুল ইসলাম ও তার স্ত্রী বুলবুলি বেগম বিষ প্রয়োগ করে এসব জমির রোপণকৃত চারা নষ্ট করে দিয়েছেন। এঘটনায় গ্রামবাসির মধ্যে চরম উত্তেহনা বিরাজ করছে। এব্যাপারে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি রেজাউল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এব্যাপারে জানতে চাইলে সাদিকুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কে বা কারা ধানখেতে বিষ প্রয়োগ করেছে, অথচ তার নামে অভিযোগ করা হয়েছে।