দুপচাঁচিয়ায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষক গ্রেপ্তার

দুপচাঁচিয়া(বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় পঞ্চম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে(১৩) ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষক ইশতিয়াক চৌধুরী ওরফে ইফতি(১৯)কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ১৬ নভেম্বর সোমবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত ইফতি উপজেলার তালোড়া পৌর এলাকার তালোড়া চৌধুরীপাড়া মহল্লার ইউনুস চৌধুরীর ছেলে।
থানায় মামলা সূত্রে জানা যায়, ধর্ষিতা ছাত্রীর পিতা একজন দরিদ্র ভ্যানচালক। দরিদ্রতার কারণে তার মাও একটি কারখানায় শ্রমিকের কাজ করেন। তার মেয়ে স্থানীয় একটি মাদ্রাসার পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী। তারা স্বামী-স্ত্রী উভয়ই বাড়িতে না থাকায় তার মেয়ে অভিযুক্ত ইফতির বাড়িতে খাওয়া-দাওয়া ও খেলাধুলা করতো। এরই মাঝে গত ৩০অক্টোবর দুপুর আনুমানিক ১.৪৫মিনিটে ইফতির বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে সে তার মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। এ ঘটনা তার মেয়ে তার পিতা-মাতাকে জানায়। সেই সঙ্গে ক্ষোভে আত্মহত্যার হুমকিও দেয়। তার মেয়ে তাদের আরও জানায় যে, অভিযুক্ত ইশতিয়াক ইতিপূর্বে তাকে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষন করেছে। ইফতি বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য তাকে ভয়ভীতিও দেখিয়েছে। এ ঘটনায় ১৬নভেম্বর বিকালে ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে দুপচাঁচিয়া থানায় ইফতিকে আসামী করে ধর্ষন মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পরপরই ঘটাস্থল পরিদর্শন করেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(আদমদীঘি সার্কেল) কেএইচএম এরশাদ।
দুপচাঁচিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হাসান আলী বলেন, মামলা গ্রহনের পর অভিযান চালিয়ে সোমবার রাতেই আসামী ইশতিয়াক চৌধুরী ওরফে ইফতিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। ভিকটিম ছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ