মাস্ক না পরার অপনাধে বগুড়ার ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৫০ ব্যক্তিকে জেল-জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে মাস্ক না পরার অপরাধে ৩জন ব্যক্তিকে জেল ও ৪৭ জনকে জরিমানা করেছেন। বুধবার বগুড়া শহরের সাতমাথা ও মাটিডালি বিমানমোড় এলাকায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাছিম রেজা ও পাপিয়া সুলতানা এবং বগুড়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আজিজুর রহমান পৃথক দুটি স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, দন্ডিত ৩ ব্যক্তির মধ্যে একজনকে ৭দিন এবং অপর দুইজনকে ১দিন করে কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। বাকি ৪৭ জনকে ৬ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা হয়। সংক্রমণ রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইনে অভিযুক্তদের দন্ডাদেশ দেওয়া হয়। কারাদন্ড প্রাপ্তরা হলেন- বগুড়ার ধুনট উপজেলার বেড়েরবাড়ি গ্রামের মৃত সেকেন্দার আলীর ছেলে আবু কালাম (৩৬)। আবু কালামকে সাত দিনের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে দু’জনকে বগুড়ার সদর উপজেলার ঝোপগাড়ি এলাকার মোহাম্মদ সোহেলের ছেলে মোহাম্মদ মোহন (১৮) ও সদর উপজেলার শাখারিয়া এলাকার আব্দুল হামিদের ছেলে সিহাব হাসানকে (১৯) এক দিনের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। বগুড়ার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাছিম রেজা জানান, তিনি এবং অপর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পাপিয়া সুলতানা বুধবার বগুড়া শহরের প্রানকেন্দ্র সাতমাথা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় মাস্ক না পরায় মোহাম্মদ মোহন ও সিহাব হাসান নামে ২ জনকে একদিন করে কারাদন্ড এবং অপর ৩০ জন মানুষকে ৩ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা করা হয়।বগুড়ার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আজিজুর রহমান জানান, বুধবার বগুড়া শহরের উত্তরের প্রবেশমুখ মাটিডালি বিমানমোড় এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। ওই একই আইনে তিনি আবু কালাম নামে এক ব্যক্তিকে ৭দিন বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন। এছাড়া আরও ১৭ জনের প্রত্যেককে ২০০ টাকা করে ৩ হাজার ৪০০ টাকা জরিমানা করা হয়।একই অপরাধে এর আগে মঙ্গলবার ৭ জনের জেল-জরিমানা করা হয়েছিল। জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা জানান, আগামীতে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।