হত্যার ৯ মাস ২৩ দিনপর প্রধান আসামি গ্রেফতার

কারিমুল হাসান লিখন, ধুনটঃ বগুড়ার ধুনটে সুলতান (৩৮) নামের হত্যা মামলার এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার ঢাকার কাফরুল থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সে ধুনট উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের শৈলমারী গ্রামের মৃত আলতাফ আলীর ছেলে ও একই এলাকার চাঞ্চল্যকর কৃষক রঞ্জু হত্যা মামলার প্রধান আসামি।

স্থানীয় ও পারিবারিক সুত্রে জানাযায়, ধুনট উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের শৈলমারী গ্রামের মৃত মোকছেদ আলীর ছেলে রঞ্জু মিয়া একজন আদর্শ কৃষক। চলতি বছরের বোরো মৌসুমের ধান চাষের শুরুতে গত জানুয়ারী মাসের ৩১ তারিখ শুক্রবার রাতে নিজ বাড়ির দক্ষিন পার্শ্বে নিজের জমিতে পাওয়ার টিলার দিয়ে হাল চাষ করছিলেন রঞ্জু মিয়া (৪২)। এ সুযোগে রাত ১০টায় তার উপর হামলা করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এসময় তার চিৎকারে প্রতিবেশি ও স্বজনরা এগিয়ে এসে গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। অবস্থা গুরুত্বর হওয়ায় তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে রঞ্জু মিয়া মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে একটি হাসুয়া (দেশীয় অস্ত্র) উদ্ধার করে।

নিহত রঞ্জু মিয়ার চাচা অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক মোকবুল হোসেন জানান, রঞ্জু মিয়া একজন আদর্শ কৃষক। দিনরাত পরিশ্রম করে বিভিন্ন ফসলের চাষ করে আসছিল। বোরো ধান চাষের জন্য শুক্রবার রাতে নিজের জমি প্রস্তুত করছিল। এসময় তাকে একা পেয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে র্দূবৃত্তরা।

ধুনট থানার এসআই প্রদীপ কুমার বর্মন জানান, এ ঘটনায় গত ফেব্রয়ারী মাসের ২ তারিখ রবিবার ধুনট থানায় দন্ডবিধি ৩০২/৩৪ ধারায় একটি মামলা দায়ের হয়। ওই মামলার প্রধান আসামি সুলতান কে শনিবার ঢাকার কাফরুল থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।