ঝিনাইদহে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হত্যায় অতিরিক্ত ডিআইজি’র ঘটনাস্থল পরিদর্শন

ঝিনাইদহ সংবাদদাতাঃ ঝিনাইদহে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফিরোজ হোসেন হত্যার ঘটনায় ৮ জনকে আসামী করে সদর থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় রোববার রাতেই গ্রেফতার করা হয়েছে ৩ জনকে। রোববার রাতে নিহতের পিতা বাদি হয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাইদুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম ও শিমুল হোসেনকে গ্রেফতার করেছে। এদিকে সোমবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন পুলিশের খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি হাবিবুর রহমান। তিনি বলেন, নিজেদের ভিতরে বিদ্যমান কোন্দলের জেরে সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফিরোজকে হত্যা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পুলিশ জোর তদন্ত চালাচ্ছে। ইতোমধ্যেই অভিযান চালিয়ে ভোররাতে বিভিন্ন স্থান থেকে ৩ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে, বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। অবশ্যই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত বাকি আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে। এছাড়াও তিনি পরিবারটিকে ন্যায় বিচারের আশ্বাস দেন। উল্লেখ্য, গত রোববার দুপুরে ঝিনাইদহ শহরের আরাপপুর চাঁনপাড়ায় পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ হোসেকে কুপিয়ে গুরুতর যখম করে দুবৃর্ত্তর। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।