লক্ষ লক্ষ টাকা ব্যায়ে নির্মিত ব্রীজ ধ্বংসের মুখে বগুড়ার গাবতলীতে চলছে অবৈধভাবে বালুউত্তোলন

উত্তরবঙ্গ নিউজ ডটকম,বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় ১৫/১৬টি স্পটে অবাধে চলছে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন। আর একারণে সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ব্রীজগুলি ধ্বংসের পথে এগিয়ে গেলেও তা যেন দেখার কেউ নেই। যারা অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছেন তারা ক্ষমতার দাপটে কেউবা প্রশাসনের ছত্রছায়ায় মাশোয়ারার মাধ্যমে করছে বলে জানা গেছে। সরে জমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলার বালিয়াদিঘী ইউনিয়নের সুবাদ বাজার প্রভাবশালী বালু ব্যবসায়ী তরুন মন্ডল ব্রীজের নিচ থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে ফসলী জমি ভরাট করছেন। একদিকে অবৈধ পন্থায় জমি ভরাট অন্যদিকে এলাকার লক্ষ লক্ষ মানুষের যাতায়াতের ভরসা ব্রীজটি ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার আশংকায় এলাকাবাসী। বালু তুলে ব্রীজের ক্ষতি সম্পর্কে জানতে চাইলে সে জানায়, দেশে কত অবৈধ কাজ হচ্ছে আর এটা তো সামান্য ব্যাপার। অপরদিকে তরণীহাট ব্রীজের নিজ থেকে রিপন, রাজু, সজীব ও পাশা দীর্ঘ দিন যাবৎ বালু তুলছেন। সরকার দলীয় প্রভাবে তারা এসব করছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। জানা গেছে, মহিষাবান ইউনিয়নের ছয় মাইল এলাকার মোতাহার হোসেন, ইউনূস আলী, সর্বনকুঠির জয়, আয়নাল হোসেন, টিপু, গাবতলী-সোনাতলার সীমান্তবর্তী নওদাবগার কালু, সোনারায় ইউনিয়নের রফিকুল, নাজেম, মহিচরণ বিল থেকে সুফল ও পলাশ, আটাপাড়ার পিন্টু , জিয়াসহ প্রায় ৩৫/৪০ জন এই এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে। এর মধ্যে সুখানপুকুরের ডঙর, পোড়াপাড়া, সর্ধনকুঠির জয়, তরণীহাটের রিপন, রাজু, নওদাবগার কালু, স্থায়ীভাবে বালু তুললেও প্রশাসন যেন দেখেও দেখেন না। সুবাদ বাজার প্রভাবশালী বালু ব্যবসায়ী তরুন মন্ডলের ব্রীজের নিচ থেকে অবৈধভাবে বালু তোলা বিষয়ে জানতে চাইলে,গাবতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: মনিরুজ্জামান জানান, বিষয়টি আমার নলেজে ছিলনা, এধরণের ঘটনা ঘটলে আমরা অবশ্যই বন্ধ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

সর্বশেষ সংবাদ