সেনা সদস্য থেকে হাতিয়ে নেই ১৮ লাখ, মহেশপুরে কথিত ম্যাগনেট ব্যবসায়ী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের মহেশপুর এলাকা থেকে ফরিদ হোসেন নামে কথিত এক ম্যাগনেট ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মহেশপুরের সাবেক সেনা সদস্য আমিনুল ইসলামের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ফরিদ জীবননগর উপজেলার হাসাদহ গ্রামের বাসিন্দা। সে নেপা ইউপির মাইলবাড়ীয়া পুর্ব ঢাকা পাড়া গ্রামের মৃত আবু সাঈদের কন্যা মোছাঃ জামেনা খাতুনকে বিয়ে করে ঘরজামাই হিসেবে বসবাস করছিল। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার কাছে কোটি কোটি টাকায় ম্যাগনেট ও ধাতব মুদ্রা বিক্রির লোভ দেখিয়ে ফরিদ হোসেন সাবেক ওই সেনা সদস্যের কাছ থেকে ১৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। তার সঙ্গে শক্তিশালী এক প্রতারক চক্র মহেশপুর সীমান্ত এলাকায় সক্রিয় আছে। পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, প্রতারক ফরিদ হোসেন পুরাতন ধাতব মুদ্রা, তক্ষক সাপ (এক প্রকার গিরগিটি) এবং সীমানা পিলারকে মূল্যবান ধাতব হিসেবে উপস্থাপন করে বিক্রির নামে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল। এই প্রতারক চক্রের খপ্পড়ে পড়ে নিঃস্ব হন মহেশপুর উপজেলার কুল্লাহ গ্রামের সাবেক সেনা সদস্য আমিনুল। ২০১৯ সালে প্রতারক ফরিদ কোটিপতি হওয়ার লোভ দেখিয়ে প্রথমে ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে ধাতব দ্রব্য ম্যাগনেট ব্যবসার লোভ দেখিয়ে আরো ১৮ লক্ষ টাকা গ্রহন করে। মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সাইফুল ইসলাম খবরের সত্যতা স্বীকার করে জানান, ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার ৬নং নেপা ইউনিয়নের মাইলবাড়িয়া গ্রামের ফরিদ হোসেনকে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে ম্যাগনেট ব্যবসার নাম করে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তার বিরুদ্ধে মহেশপুর থানায় মামলা হয়েছে।