গাবতলীতে গুলি ও রিভলভারসহ দাদন ব্যবসায়ী শাহীন গ্রেফতার

আমিনুল আকন্দঃ বগুড়ার গাবতলীতে বিদেশি রিভলভার ও এক রাউন্ড গুলিসহ সকাল সন্ধ্যা সমিতির মালিক দাদন ব্যবসায়ী আবু বক্কর সিদ্দিক শাহীন নামের ব্যাক্তিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। সে দুর্গাহাটা ইউনিয়নের গড়ের বাড়ি পুর্বপাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে। থানার মামলা সুত্রে জানাগেছে, গাবতলী মডেল থানার ইন্সপেক্টর (অপরেশন) মোঃ লাল মিয়া সঙ্গীয় এএসআই মোস্তাকিন, মোঃ কাজেম আলী ও কনষ্টবল ফরিদুল ইসলামকে নিয়ে ২২ ফেব্রুয়ারী দিবাগত রাত্রী কালিন ডিউটি চেক ও বিশেষ অভিযান চলাকালে হাতিবান্ধা বাজারে অবস্থান করছিলেন। এমন সময় গোপন সংবাদে জানতে পারেন, দুর্গাহাটা গড়ের বাড়ি ৪ মাথা এলাকায় অবস্থিত সকাল সন্ধ্যা সমিতির মালিক দাদন ব্যাসায়ী মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক শাহীন (৪২) সে তার পরনের লুঙ্গিতে কোমরে অবৈধ অগ্রেয়াস্ত্র রেখেছেন। সেখানে লাল মিয়াসহ সঙ্গীয় ফোর্স দ্রুত সেখানে পৌছে শাহিনকে ঘেরাও করে। পুলিশের উপস্থিততি টেরপেয়ে শাহিন পালানোর চেষ্টা করলে তাকে পুলিশ আটক করে। তার দেহ তল্লাসী করে একটি ইটালিয়ান নাইন এমএম যাতে লেখা ছিল ওনলি ফর আর্মি সাপ্লাই। ম্যাগজিনসহ এক রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করে পুলিশ। রিভলভারের কোন বৈধ লাইসেন্স ও কাগজপত্র দেখাতে পারেনি সকাল সন্ধ্যা সমিতির মালিক দাদন ব্যবসায়ী মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক শাহীন। তাকে গ্রেফতার করে রাতেই থানায় আনা হয়। মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক শাহীন’র বিরুদ্ধে গাবতলী মডেল থানার ইন্সপেক্টর (অপরেশন) মোঃ লাল মিয়া বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে থানার একটি মামলা করেছেন। সিনিয়র পুলিশ সুপার গাবতলী সার্কেল মোছাঃ সাবিনা ইয়াসমিন স্থানীয় সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে বলেন, অবৈধভাবে নিজ শরীরে বহনকালে একটি বিদেশী রিভলভারসহ মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক শাহীন নামের দুর্গাহাটা গড়ের বাড়ি এলাকার সকাল সন্ধ্যা সমিতির মালিক কে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে এলাকার একজন দাদন ব্যবসায়ী। চড়াসুদে সাধারন মানুষকে টাকা দিয়ে অবৈধভাবে দাদন ব্যবসা করে আসছে। তার বিরুদ্ধে থানায় অস্ত্র আইনে মামলা করা হয়েছে। তাকে রিমান্ডে এনে আরো তথ্যের জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

ক্যাপশনঃ-বগুড়ার গাবতলীতে এক রাউন্ড গুলি ও বিদেশী রিভলভারসহ সকাল সন্ধ্যা সমিতির মালিক দাদন ব্যবসায়ী আবু বক্কর সিদ্দিক শাহীন (৪২)কে পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠায়।