বগুড়ায় মৎসজীবী লীগের আহ্বায়ক কমিটি বাতিলের সুপারিশ করেছে জেলা আওয়ামী লীগ

বগুড়ায় বাংলাদেশ আওয়ামী মৎসজীবী লীগ এর পূর্ণাঙ্গ কমিটি থাকার পরেও সংগঠন বহির্ভুত ও বিতর্কিতভাবে করা ১৯ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি বাতিলের সুপারিশ করেছে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ। আহ্বায়ক কমিটি বাতিলের লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর প্রেরিত আবেদনে লিখিত সুপারিশ করেন নেতৃবৃন্দ।
মঙ্গলবার বিকেলে বাংলাদেশ আওয়ামী মৎসজীবী লীগ বগুড়া জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহতাব উদ্দিন (লাল) স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় কমিটির অনুমোদন নিয়ে বগুড়ায় বাংলাদেশ আওয়ামী মৎসজীবী লীগ এর সভাপতি আবুল কালাম ও সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব উদ্দিন (লাল) এর নেতৃত্বে পূর্ণাঙ্গ কমিটি চলমান থাকা সত্ত্বেও গোপনীয়তার সাথে সংগঠনের নিয়ম না মেনে রাসেল আহম্মেদ (কনক) কে আহ্বায়ক ও কামরুজ্জামান মানিক কে সদস্য সচিব করে ১৯ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয় যেখানে বর্তমান কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুমতি না নিয়েই আহ্বায়ক কমিটিতে তাদেরকেও ৭ ও ৮ নং সদস্য হিসেবে সংযুক্ত করেছেন যা নিন্দনীয় ও আইনত দন্ডনীয় অপরাধ মর্মে অভিযোগ করেন তারা। এ্রই প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ আওয়ামী মৎসজীবী লীগ এর কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর উক্ত আহ্বায়ক কমিটি বাতিলের লক্ষ্যে আবেদন করেন বর্তমান পূর্ণাঙ্গ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব উদ্দিন (লাল) যে আবেদনে উক্ত আহ্বায়ক কমিটি বাতিলের লক্ষ্যে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে লিখিত সুপারিশ করেছেন সহ-সভাপতি এ্যাড. মোহাম্মদ আমানউল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক এম শাহরিয়ার আরিফ ওপেল এবং সর্বশেষ সুপারিশ করেছেন শেরপুর-ধুনট আসনের সাংসদ প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবর রহমান এমপি। খবর বিজ্ঞপ্তির

 

সর্বশেষ সংবাদ