মহেশপুরে ভাতিজার দা’র কোপে বৃদ্ধ চাচা নিহত

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ- ঝিনাইদহের মহেশপুরে ওসমান বক্স (৭২) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার আপন ছোট ভাই আলম বক্সের ছেলেরা। এ সময় আহত হয়েছে আরো অনন্ত ১২ জন। মঙ্গলবার (৯ মার্চ) দুপুর ২ টার দিকে উপজেলার আলামপুর গ্রামের কুলপাড়ায় এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহত ওসমান ওই গ্রামেরই মৃত আজিজ বক্সের ছেলে। এ ঘটনায় আহতদের কোটচাদপুর উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এরমধ্যে অবস্থার অবনতি হওয়াই রমজান ও মকছেদ নামে দু’জনকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। প্রতিবেশিরা জানানয়, বেশ কিছুদিন ধরেই পারিবারিক কৃষি জমি নিয়ে ওসমান, আলম বক্স ও ছোট ভাই খাদেম বক্সের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে দুপুরে বড় ভাই ওসমানের সাথে ছোট ভাই আলম বক্সের ছেলে আনোয়ার হোসেন, রমজান আলী ও মকছেদ আলীর সাথে কথাকাটাকাটি হয়। এরপর তারা দু’পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে ছোট ভাই আলমের ছেলে আনোয়ার হোসেন ধারালো দা দিয়ে বড় চাচা ওসমান বক্সের মাথায় কোপ দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ সময় আনোয়ার হোসেন, রমজান আলী, মকছেদ অপর চাচা খাদেম বক্স ও তার ছেলে সেলিম ও জুড়ন বক্সসহ পরিবারের আরো অন্তত ১২ জন গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কোটচাদপুর উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা: জেরিন জানান, মারামারি সংক্রান্ত বিষয়ে ১২ জন রোগী হাসপাতালে এসেছিল। এর মধ্যে একজন মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল। মৃতের মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। মহেশপুর থানার ওসি তদন্ত রাশেদুল আলম জানান, ভাইয়ের ছেলেদের হাতে চাচা খুন হয়েছে এমন খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে এখনো পর্যন্ত কোন মামলা বা কাউকে আটক করা যায়নি।