কুড়িগ্রামে সস্ত্রাসী হামলায় কলেজ শিক্ষক ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতার এক হাত ও এক পা প্রায় বিছিন্ন,

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি :  কুড়িগ্রামে কলেজ শিক্ষক ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি আতাউর রহমান মিটুকে কুপিয়ে এক হাত ও এক পা প্রায় বিছিন্ন করে ফেলেছ সস্ত্রাসীরা। গুরুত্বর আহত অবস্থায় আতাউর রহমান মিটুকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে কুড়িগ্রাম-রংপুর মহা সড়কের কাঠালবাড়ী ও জেলা শহরের শহীদ মিনার এলাকায় সড়ক অবরোধ করেছে স্থানীয়রা । মঙ্গলবার দুপুর ২ টার দিকে রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের পালপাড়া এলাকায় এক ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, দুপুর ২ টার দিকে আতাউর রহমান মিটুকে ঐ এলাকায় আসলে একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। এসময় ধারালো অস্ত্রের কোপে আতাউর রহমান মিটুর এক হাত ও এক পা প্রায় বিছিন্ন হয়ে পড়ে। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এলে সস্ত্রাসীরা বীরদর্পে সেখান থেকে চলে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেলে পাঠানো হয়। আতাউর রহমান মিটু ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেনর ২য় পুত্র। রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাজু সরকার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আহত মিটুকে গুরুত্বর অবস্থায় রংপুর নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্তÍ মামলা হয়নি।