কুড়িগ্রামে কব্জি হারানো মিন্টুর পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

সাইফুর রহমান শামীম কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : ২০.০৩.২০২১ কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি ও কলেজ শিক্ষক আতাউর রহমান মিন্টুর কবজি কেটে নেয়াসহ হামলার পর ৪দিনের সংশ্লিষ্টদের পুলিশ গ্রেফতার না করায় হতাশ তার পরিবার। সুষ্ঠু বিচারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করে কাকুতি জানিয়েছে পরিবারের লেঅকজন। শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ী বাজারের পাশে বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন মিন্টুর স্ত্রী নওরিন আক্তার চুনী, বাবা আলতাফ হোসেন, মা ফাতেমা বেগম, ভাই আশরাফুজ্জামান রাজু ও আফতাবুজ্জামান সাজু। স্বজনরা অভিযোগ করেন, সন্ত্রাসীরা নারকীয় ঘটনা ঘটার চারদিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ এখনো একজন আসামীকেও গ্রেফতার করেনি। তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পরিবারের নিরাপত্তাসহ এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন। মিন্টুর বাবা বলেন, বারবার তাদের উপর হামলা চালানো হয়েছে। শেষে ছেলেটার হাত কেটে নিল। এর দ্রুত বিচার না হলে আমরা শান্তি পাবোনা। গত ১৬ মার্চ দুপুরে রাজারহাটের রামরতন এলাকায় পথরোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মিন্টুর ডান হাতের কব্জি কেটে নেয় এবং বাম হাতও পা বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা চালায়। বর্তমানে তিনি ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনার দুদিন পর বৃহস্পতিবার পঁাচ লাখ টাকা চঁাদা দাবী করে না পেয়ে মিন্টুর উপর হামলার অভিযোগ করে বঁাধনসহ ১১জনের নাম উল্লেখসহ আরও ৩-৪জন অজ্ঞাত আসামী করে মামলা করেন মিন্টুর বাবা আলতাফ হোসেন।