চিলমারীতে গৃহবধুর আত্মহত্যা না হত্যা এ নিয়ে চলছে নানান জলপনা কল্পনা শশুড়-শাশুড়ি গ্রেফতার

সাাাইফুর রহমান শামীম ,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ১সন্তানের জননী গৃহবধুর আত্মহত্যা না হত্যা নিয়ে চলছে নানান জল্পনা কল্পনা। হত্যা মামলা দায়ের শশুড়-শাশুড়ি গ্রেফতার। এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, উপজেলার কুষ্টারী এলাকার মতিয়ার রহমানের ছেলে আরিফুল ইসলাম (৩০) এর সঙ্গে একই উপজেলা শরীফের হাটএলাকার আখতারুজ্জামানের কন্যা নুরুন হুজ্জাতুন (২০) এর সঙ্গে বিবাহ হয়। শনিবার বিকেলে গৃহবধুর বাবার বাড়ি বেড়াতে যাওয়া নিয়ে স্বামীর সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। পড়ে আরিফুল তার কাজের জন্য বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যায়। এদিকে আরিফুলের মা আম্বিয়া খাতুন (৫০) ৭ মাসের নাত নিকে নিয়ে বাড়ির বাইরে গেলে কিছুক্ষন পর শিশুটি মায়ের দুধ খাওয়ার জন্য কাঁদতে থাকলে ছেলের বউয়ের শোবার ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পেয়ে ডাকতে থাকে। কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে চিৎকার করতে থাকলে আশ পাশের লোকজনএসে দরজা ভেঙ্গে ঘরের ভিতরেওরনা পেছিয়ে সেলিংফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। উপস্থিত লোকজন তাকে বাঁচানোর জন্য ওরনা কেটে নীচে নামিয়ে মৃত্যু হয়েছে দেখতে পায়। পরে চিলমারী মডেল থানা পুলিশ গিয়ে মৃতের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে মরদেহ মর্গে প্রেরণকরে। এ বিষয়ে চিলমারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ারুল ইসলাম জানান, মৃতের বাবা আখতারুজ্জামান তার মেয়েকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে দাবী করে ৫জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় শশুড় মতিয়ার রহমান (৬০) ও শাশুড়ি আম্বিয়া খাতুন (৫০) কে গ্রেফতার করে রবিবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে

সর্বশেষ সংবাদ