বগুড়ার গাবতলীতে বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন

বগুড়ার গাবতলী উপজেলার বালিয়াদিঘী ইউনিয়নে বন্ধুর কাছ থেকে পাওনা টাকা চাওয়ায় অপর বন্ধুর হাতে ছুরিকাঘাতে খুনের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (২১ মে) রাত সাড়ে এগারোটায় এই খুনের ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম আব্দুস সালাম (১৯) সে বালিয়াদিঘী ইউনিয়নের মোঃ সাজু প্রামানিকের ছেলে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায় যে আব্দুস সালাম (১৯) ও তার বন্ধু জীবন (২০) একই গ্রামে বসবাস করার কারণে তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে এবং তারা একসঙ্গে রাজমিস্ত্রির সহকারী হিসেবে কাজ করে। তাদের মধ্যে ভালো বন্ধুত্ব গড়ে ওঠার কারনে জীবন আব্দুস সালাম এর কাছ থেকে ঘটনার কিছুদিন আগে ২০০ টাকা ধার নেয়। ওই ২০০ টাকা জীবনের কাছ থেকে আব্দুস সালাম চাইতে গেলে সে দিতে তালবাহানা করে এর এক পর্যায়ে আব্দুস সালাম জীবনকে টাকার পরিবর্তে তার মোবাইল সেট কেড়ে নেওয়ার হুমকি দেয়। ছুরিকাঘাতে ঘটনার কিছু আগে জীবন আবদুস সালামকে টাকা দিবে বলে ফোনে  স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে আসতে বলে সালাম সেখানে পৌঁছার পর জীবন তাকে স্কুল থেকে সামান্য কিছু দূরে নিয়ে গিয়ে তার পেটে ছুরিকাঘাত করে ওই সময় সালাম এর প্রতিকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে জীবন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন  আবদুস সালামকে  উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।
এই বিষয়ে গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি সার্বিক) জিয়া লতিফুল এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, নিহত আব্দুস সালামকে হাসপাতালে নেওয়ার সময় সে তার পরিবারকে খুনের সমস্ত ঘটনা খুলে বলেছে। ঘটনার পর থেকেই পুলিশের কিছু টিম জীবন কে গ্রেপ্তার করার জন্য অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

সর্বশেষ সংবাদ