নিরাপত্তার দাবিতে বগুড়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন

রায়হানুল ইসলাম: বগুড়ার দুপচাঁচিয়ার গুণাহার ইউপির খাগড়ায়- ষাটোদ্ধ বৃদ্ধ পিতাকে সম্পত্তির জন্য হত্যার চেষ্টা, সম্পত্তি দখলে জাল দলির সৃষ্টি করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ায় খেয়ে না খেয়ে অন্যের বাড়িতে মানবেতর জীবন যাপন করছেন মর্মে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ষাটোর্দ্ধো বৃদ্ধ পিতা আফজাল হোসেন বিশা। গতকাল বগুড়া প্রেস ক্লাবে লিখিত বক্তব্যে ঐ বৃদ্ধ নিরাপত্তাসহ তাকে তার ন্যায্য অধিকার পাইয়ে দিতে প্রধানমন্ত্রী, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ প্রশাসনের উর্দ্ধোতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমার পৈত্তিক সম্পত্তি জেলা বগুড়া, থানা : দুপচাঁচিয়া, মৌজা-খাগড়া, জে.এল নং-৬৯, এম,আর আর , খ-নং ৪৯, নতুন-৬২, ডিপি নং-৪। সাবেক হাল দাগ ১১৭/২৫৩ পরিমাণ ২৪ শতক। সাবেক হাল দাগ -৪৯/১৯৭ পরিমাণ ৬ শতক। সাবেক হাল দাগ-৪৯/১৯৭ পরিমাণ ১ শতক ভোগদখল করে আসছিলাম। কিন্তু উক্ত সম্পত্তি এলাকার কুচক্রীমহল- মহুরী নারায়ন বৈরাগী পিতা মৃত জলো বৈরাগী, সাং-পাওগাছা, হাফিজার ভেন্ডার পিতা মৃত মোনা হাজী, আক্কাস আলী পিতা মৃত মোহাম্মদ আলী সাং খাগড়া , খলিল মহুরী পিতা মৃত রমজান সাং ঝাঝড়িয়া, আ: সামাদ পিতা আবুল প্রামাণিক-এর যোগসাজসে আমার পুত্রদ্বয় হাসান আলী প্রাং ও তারেখ আলী প্রাং মোট ৩১ শতক জমি জাল দলিল সৃষ্টি করেছে। শুধু তাই নয় তারা আমাকে হত্যার জন্য রাতে ভাড়গাটিয়া সন্ত্রাসী মো: আলা কে দিয়ে হত্যার ষড়যন্ত্র করেছে। বিষয়টি নিয়ে দুপচাঁচিয়া থানায় বিষয়টি অবগত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলেও থানা প্রশাসন কোন কর্ণপাত করেননি। ঘটনার তদন্তে আজব্দি কেউ যায়নি। একই সাথে ঐ কুচক্রীমহল আমার সাক্ষর জাল করে আমাকে বাদী করে বিজ্ঞ আদালতে মিথ্যা মামলা ১২৭/২০২০ দায়ের করেন। এভাবে ষড়যন্ত্র করে তারা আমাকে ফাঁসাতে সদা প্রস্তুত। তিনি মানবিক দাবি নিয়ে জীবনের শেষ সময়ে শেষ আশ্রয়ে নিরাপত্তা ও সুখ শান্তিতে জীবনের বাকিটা সময় অতিবাহিত করতে দায়ীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সর্বশেষ সংবাদ