বাংলাদেশ অসহায় শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন

একজন শিল্পী জাতির দর্পন। তার প্রতিভা দ্বারা সমাজের উপযোগীরুপে পুরোপুরি একজন মানুষ হিসেবে বিশেষ সহায়ক। সুস্থ্য দেহ-মন আত্মার মানুষ হিসেবে এ সমাজের পরিচিতি পেয়ে থাকে একজন শিল্পী। সমাজের বাস্তব চিত্র ফুটে তোলার ক্ষেত্রে তাদের ভূমিকা অপরিসীম। ভালো মানুষ হতে হলে প্রথম শর্তই হচ্ছে নিজেকে শিল্পীমনা করে গড়ে তোলা। সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মাঝে সংস্কৃতিক বীজ বুনাতে হবে। যে দেশে শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতির চর্চা বেশি সে দেশে দেশ প্রেমের কোন ঘাটতি থাকে না। শিক্ষার উদ্দেশ্য মনুষ্যত্ব অর্জন সাথে বিনোদন। অর্থ্যাৎ শিক্ষা মানুষকে মনুষ্যত্ব অর্জন শেখায়। আর বিনোদন একটি সুস্থ্য জাতি গঠন করে। এ বিনোদনে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা পালন করে একজন শিল্পী। এ সমাজে একজন শিল্পীর ভূমিকা অনস্বীকার্য। তারা অস্বচ্ছল হলে এ জাতি অনেক পিছিয়ে পড়বে। এ বিবেচনার ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে অ-স্বচ্ছল শিল্পীদের মাঝে অর্থ প্রদান করেছেন। সরকারের পাশাপাশি আমাদেরও উচিৎ শিল্পীদের জন্য ভাবা। এ চিন্তা -চেতনা থেকে অ-স্বচ্ছল শিল্পীদের জন্য বাংলাদেশ অসহায় শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করা হয়েছে যা হবে অ-স্বচ্ছল ও অসহায় শিল্পীদের এক আলোর দিশারী। অতি সম্প্রতি উক্ত কমিটিতে প্রধান উপদেষ্টা চিত্রনায়ক যুবরাজ খান, সভাপতি আনিছুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আতিক হাসানসহ ২১ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হয়।

সর্বশেষ সংবাদ