অবশেষে মূল্যবান গোলটিই করলেন চেলসির সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়

ইউরোপিয়ান শ্রেষ্ঠত্বের আসর উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতেছে ইংলিশ ক্লাব চেলসি। শনিবার রাতে ইংল্যান্ডেরই আরেক ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে ২০১২ সালের পর প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হলো স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলটি।

ম্যাচের স্কোরলাইন আরও বড় হতে পারত চেলসির পক্ষে। কিন্তু একের পর এক গোল মিস করে গেছেন দলের জার্মান ফরোয়ার্ড টিমো ওয়ের্নার। অবশ্য শেষ পর্যন্ত আরেক জার্মান কাই হ্যাভার্তজের করা একমাত্র গোলেই জয় পেয়েছে চেলসি।

চলতি মৌসুমে চেলসির সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় ২১ বছর বয়সী কাই হ্যাভার্তজ। জার্মান ক্লাব বেয়ার লেবারকুসেন থেকে তাকে দলে পেতে ৮০ মিলিয়ন ইউর গুনতে হয়েছিল চেলসিকে।

কিন্তু সে তুলনায় পুরো মৌসুমে তেমন পারফরম্যান্স উপহার দিতে পারেননি হ্যাভার্তজ। অবশ্য ম্যাচের শুরুর একাদশে ছিলেন ২১ বার, সবমিলিয়ে খেলেছেন ৪৪টি ম্যাচে। যেখানে ৯ গোল ও ৯ এসিস্ট করতে পেরেছেন তিনি।

সদ্য সমাপ্ত চ্যাম্পিয়নস লিগে চেলসির হয়ে ১১ বার মাঠে নেমেছেন হ্যাভার্তজ। আগের ১০ ম্যাচে একবারও গোলের দেখা পাননি তিনি। শনিবার রাতে আসরের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচেই তিনি বোকা বানালেন ম্যান সিটির রক্ষণকে।

পুরো আসর জুড়ে কোনো গোল না করে, চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালেই প্রথম গোল করলেন চেলসির সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়। সবশেষ ২০১৩ সালের আসরে ফাইনালেই নিজের প্রথম গোল করেছিলেন আরেক জার্মান ফুটবলার ইল্কায় গুন্ডোগান।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে ফাইনাল ম্যাচে গোল করা ১১তম কনিষ্ঠ ফুটবলার হ্যাভার্তজ। ম্যাচের দিন তার বয়স ২১ বছর ৩৫২ দিন। সবচেয়ে কম ১৮ বছর ৩২৭ দিন বয়সে ফাইনালে গোল করার রেকর্ড প্যাট্রিক ক্লুইভার্টসের।

এছাড়া জার্মানির প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে জার্মানির বাইরে অন্য দেশের ক্লাবের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে গোল করেছেন হ্যাভার্তজ।