মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ২৯ জুলাই বিএনপি নেতা সাকা চৌধুরীর চূড়ান্ত রায়

জিটিবি নিউজ ডেস্ক ঃ মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে দেওয়া মৃত্যুদন্ডের রায়ের বিরুদ্ধে সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর আনা আপিল মামলার চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করা হবে ২৯ জুলাই। এছাড়াও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে একটি মামলায় আসামি তিন রাজাকারের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা অপেক্ষমাণ (সিএভি) রয়েছে।
মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের এ মামলায় গত ২৩ জুন বাগেরহাটের তিন রাজাকার শেখ সিরাজুল হক ওরফে সিরাজ মাস্টার, আবদুল লতিফ ও খান আকরাম হোসেনের বিরুদ্ধে মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে যেকোনো দিন রায় (সিএভি) ঘোষণার জন্য রাখা হয়েছে। ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বিচারিক প্যানেলে ওইদিন এ আদেশ দেয়। এর আগে পৃথক দুটি ট্রাইব্যুনালে আরো ২০ মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। ট্রাইব্যুনালে রায়ের বিরুদ্ধে আনা আপিলে আরো ৮টি আপিল মামলা শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে।
গত ৭ জুলাই বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাকা চৌধুরীর আপিলের ওপর শুনানি শেষে আগামি ২৯ জুলাই রায় ঘোষণার তারিখ ধার্য করা হয়। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে চার বিচারপতির বেঞ্চ রায় ঘোষণার দিন ধার্য করে আদেশ দেয়। এ নিয়ে ট্রাইব্যুনাল থেকে আপিল বিভাগে আসা পঞ্চম আপিল মামলার শুনানি শেষে চূড়ান্ত রায় ঘোষণার পর্যায়ে পৌঁছলো। জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের চূড়ান্ত রায়ে মৃত্যুদ- বহাল রাখার পরপরই গত ১৬ জুন শুরু হয় আপিল বিভাগে আসা ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে পঞ্চম আপিলের শুনানি। সাকা চৌধুরীর আপিল আবেদনটি আপিল বিভাগে পঞ্চম আপিল মামলা।
আসামি জামায়াত নেতা গোলাম আযম ও বিএনপি নেতা আবদুল আলীম মৃত্যুবরণ করায় তাদের মামলায় আনা আপিল অকার্যকর ঘোষণা করা হয়েছে। আপিলে শুনানির অপেক্ষায় থাকা মামলার আসামিরা হলেন- মতিউর রহমান নিজামী, মির কাশেম আলী, মোবারক হোসেন, সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সার, এটিএম আজহারুল ইসলাম, আবদুস সুবহান, পলাতক ইঞ্জিনিয়ার আবদুল জব্বার ও মাহিদুর রহমান।