গাবতলীতে সরকারী গাছ চুরি ও কেটে ফেলায় ৮ জনের নামে মামলা দায়ের

গাবতলী(বগুড়া)প্রতিনিধিঃ গাবতলীতে সরকারী রাস্তার গাছ রোপন করতে বাধা গাছ চুরি কেটে ফেলা ও মারপিট করে দুইজনকে আহত করার ঘটনায় ৮ জনের নামে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা সূত্রে জানাগেছে গত ২৩ জুলাই উপজেলা মহিষাবান ইউনিয়নের পেরীহাটের পুর্ব পাশ্বে সরকারী রাস্তার দুই ধারে এলাকায় সরকারের নির্দেশ মোতাবেক বন কর্মকর্তা ও উপকারভোগীদের সমন্বয়য়ে বৃক্ষরোপন কর্মসুচি পালনকালে স্থানিয় স্বার্থান্বেষী মহল বাধা দেয়। এর প্রতিবাদ করায় লোহার সাবল দিয়ে উপকার ভোগি সদস্য আবুল কালাম আজাদকে আঘাত করে গুরুতর আহত করে। এ সময় বজলুর রহমানকে বাঁশের লাঠি দ্বারা মারপিট করে বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদান করে ঘটনার স্থান ত্যাগ করে। গত ২৬ জুলাই রাতে আসামীগন ঘটনারস্থল হইতে রোপনকৃত ১০০টি ইউক্যালিপটাস গাছ চুরি করে নিয়ে যায় যাহারমূল্যে ২ লক্ষ টাকা এবং ৩০০টি রোপনকৃত ইউক্যালিপটাস গাছ কেটে এক লক্ষ টাকা আর্থিক ক্ষতি সাধন করে। এ ঘটনায় গত ১ আগষ্ট উপজেলা বন কর্মকর্তা মোঃ দেল আবরার হোসেন বাদী হয়ে মহিষাবান ইঊনিয়নের পেরী গ্রামের মৃত নইমুদ্দিনের ছেলে আব্দুল হামিদ(৫০), শহিদুল ইসলাম(৩০), মোস্তাফিজার রহমান(৪৫) ছহিমুদ্দিনের ছেলে হেলাল(৩৫), আব্দুল বারীর ছেলে আতাউর রহমান খোকন (৩০), হায়পদ আলীর ছেলে আবু হারেজ(২৮), আব্দুর রহিম মোল্লার ছেলে রুহুল আমিন(২৮) ও বেল্লাল হোসেনের ছেলে সাকিব(২০)কে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। যাহার মামলা নং-০১।