বগুড়ায় করোনা ও উপসর্গে ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত কমেছে

স্টাফ রিপোর্টার:বগুড়ায় করোনার সংক্রমণ কমলেও বেড়েছে মৃত্যু । জেলায় করোনায় এবং উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। জেলার তিনটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে ৮জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়ে এবং অন্য ৭জন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান। এছাড়া একই সময়ে জেলায় নতুন করে আরও ৭৫জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তের হার ১৫ দশমিক ৯২শতাংশ। নতুন করে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৫২জন।বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন শনিবার বেলা ১১টার দিকে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য তুলে ধরেন।জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের মুখপাত্র ডাঃ তুহিন জানান, করোনায় মারা যাওয়া ৮জনের মধ্যে বগুড়ার ছয়জন। এরা হলেন- সদরের যথাক্রমে- মাসুম বিল্লাহ(৩৬), আব্দুল মান্নান(৬২), আজিজুল হক(৬৯), রেজাউল করিম(৬৫), নওয়াব আলী(৭০) ও মাকছুদা বেগম(৭২) এবং নন্দীগ্রামের আব্দুস সাত্তার(৫২)।এছাড়া বাকি একজন অন্য জেলার। নতুন ৭জন মারা যাওয়ায় জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৬১৯জন দাঁড়ালো।ডা. তুহিন আরও জানান, শুক্রবার মোট ৪৭১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ২৮২টি নমুনা পরীক্ষায় ৩৭জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এছাড়া ১৬টি এন্টিজেন পরীক্ষায় ৬জন করোনা পজিটিভ ছিলেন। বেসরকারি টিএমএসএস মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ২৫টি নমুনায় আরও ৫জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া ঢাকায় পাঠানো ১৪৯ নমুনার ফলাফলে ২৭জন করোনায় শনাক্ত হয়েছেন।নতুন আক্রান্ত ৭৫জনের মধ্যে সদরে ৩২, শাজাহানপুরের ১৪, দুপচাঁচিয়ায় ১০, আদমদীঘির ৯, কাহালুতে ৯ এবং গাবতলীতে একজন।ডা. তুহিন জানান, বগুড়া জেলায় এ পর্যন্ত মোট ২০ হাজার ২০৮জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৮হাজার ৬৬৯জন এবং ৯২০জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন।