বগুড়ার ধুনটে গাঁজা ও ইয়াবাসহ ০২ জন মাদক কারবারী আটক

প্রেস বিজ্ঞপ্তি-র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। জঙ্গী, সন্ত্রাসী, সংঘবদ্ধ অপরাধী, ছিনতাইকারী, জুয়ারি, মাদক ব্যবসায়ী, খুন, এবং অপহরণসহ বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর মামলার আসামী গ্রেফতারে র‌্যাব নিয়মিত অভিযান চালিয়ে আসছে।

১। এরই ধারাবাহিকতায় ১৩/১০/২০২১খ্রিঃ বিকাল ০৪.৫৫ ঘটিকায় গোপন সাংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১২ এর স্পেশাল কোম্পানীর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার মিঃ জন রানা এর নেতৃত্বে স্পেশাল কোম্পানীর একটি চৌকষ আভিযানিক দল বগুড়া জেলার ধুনট থানাধীন চকমেহেদী পশ্চিমপাড়া গ্রামস্থ ধৃত অভিযুক্ত আঃ রশিদ, পিতা-মৃত ছমির উদ্দিন এর বসত বাড়ীর পূর্ব দুয়ারী চৌচালা টিনের ঘরের দক্ষিণ পার্শ্বে রুমের মধ্যে এক মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ৩০০(তিনশত) গ্রাম গাঁজাসহ ০১ জন  মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে। এ সময় তাহার নিকট থেকে মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের কাজে ব্যবহৃত ০১ টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামী  মোঃ আঃ রশিদ(৪৫), পিতা-মৃত ছমির উদ্দিন, সাং-চকমেহেদী পশ্চিমপাড়া, থানা-ধুনট, জেলা-বগুড়া।

গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬(১) সারণীর ১৯(ক) ধারায়  মামলা দায়ের করত উদ্ধারকৃত আলামতসহ তাহাকে বগুড়া জেলার ধুনট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

২। ১৩/১০/২০২১খ্রিঃ বিকাল ০৩.৪৫ ঘটিকায় গোপন সাংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১২ এর স্পেশাল কোম্পানীর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার মিঃ জন রানা এর নেতৃত্বে স্পেশাল কোম্পানীর একটি চৌকষ আভিযানিক দল বগুড়া জেলার ধুনট থানাধীন কুড়িগাঁতী উত্তরপাড়া গ্রামস্থ জনৈক লিটন, পিতা-মৃত রইচ উদ্দিন মাষ্টারের গুদাম ঘরের পশ্চিম-উত্তর পাশের মেহগনী বাগানে এক মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ৭৩(তিয়াত্তর) পিস ইয়াবাসহ ০১ জন  মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে। এ সময় তাহার নিকট থেকে মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের কাজে ব্যবহৃত ০২ টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামী  মোঃ শাহদাত হোসেন(২৮), পিতা-মোঃ আবু তাহের মিয়া, সাং-মল্লিক চান, থানা-রায়গঞ্জ, জেলা-সিরাজগঞ্জ।

গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬(১) সারণীর ১০(ক) ধারায়  মামলা দায়ের করত উদ্ধারকৃত আলামতসহ তাহাকে বগুড়া জেলার ধুনট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, এই মাদক ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন যাবত আইন প্রয়োগকারী সংস্থার চোখ ফাঁকি দিয়ে সিরাজগঞ্জ জেলার বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ নেশাজাতীয় মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করে আসছিল।

এ ধরণের মাদক বিরোধী অভিযান সচল রেখে সোনার বাংলা গঠনে র‌্যাব-১২ বদ্ধপরিকর।

র‌্যাব-১২ কে তথ্য দিন – মাদক , অস্ত্রধারী ও জঙ্গিমুক্ত বাংলাদেশ গঠনে অংশ নিন।