মুক্তি পাচ্ছে মান্নার শেষ সিনেমা মান্নার ছবি মানেই হিট

প্রযোজকরা তাকে নিয়ে লগ্নি করতে ভরসা পেতেন। ২০০৮ সালের ১৭ ফেব্রয়ারি মৃত্যুর মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রের সফল এক নায়কের পরিসমাপ্তি ঘটে। মৃত্যুর এক যুগেরও বেশি সময় পর মুক্তি পেতে যাচ্ছে ঢালিউডের জনপ্রিয় এই নায়কের শেষ সিনেমা। নাম ‘জীবন যন্ত্রণা’। গত অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে প্রয়াত চিত্রনায়কের সিনেমাটি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সিনেমাটি আগামী ২৬ মার্চের দিকে মুক্তির পরিককল্পনা চলছে। ছবির প্রযোজক, সহপরিচালক ও সেন্সর বোর্ডের সদস্য খোরশেদ আলম খসরু সংবাদ মাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সেন্সর ছাড়পত্র পাওয়া সিনেমাটি মুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই। ২০০৫ সালে ‘লীলামন্থন’ নামে সিনেমাটির শুটিং শুরু হয়। অল্প কিছু দৃশ্যের কাজ বাকি থাকতেই ২০০৮ সালে মান্না মারা যান। বাকি অংশের কাজ গুছিয়ে ২০১১ সালে সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়ার পর নামের কারণে তা আটকে থাকে। অবশেষে নাম বদলিয়ে সেন্সর ছাড়পত্র পেল সিনেমাটি। জাহিদ হোসেন পরিচালিত সিনেমাটিতে মান্না ছাড়াও অভিনয় করেছেন মৌসুমী, পপি, শাহনূর, মুক্তি, দীঘি, বাপ্পারাজ, আলীরাজ, আনোয়ারা, শহিদুল আলম সাচ্চু, মিশা সওদাগর প্রমুখ। টাঙ্গাইলে ১৯৬৪ সালের ১৪ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেন আসলাম তালুকদার। ১৯৮৪ সালে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ কার্যক্রমের মাধ্যমে চলচ্চিত্র অঙ্গনে পা রাখেন আসলাম তালুকদার। সিনেপাড়ায় এসে ‘মান্না’ নামটি ধারণ করেন তিনি। মান্না অভিনীত প্রথম ছবি ‘তওবা’ হলেও প্রথম ছবি হিসেবে যে ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল তার নাম ‘পাগলী’। প্রথম দিকে বেশ কিছু ছবিতে মান্না প্রধান নায়ক ছিলেন না। ১৯৯১ সালে মোস্তফা আনোয়ার পরিচালিত ‘কাশেম মালার প্রেম’ ছবিতে প্রথম একক নায়ক হিসেবে সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। এ ছবিটি সুপার হিট হওয়ার কারণে একের পর এক একক ছবিতে কাজ করার সুযোগ পান জনপ্রিয় অভিনেতা। প্রয়াত এই নায়কের উল্লেখযোগ্য সিনেমার মধ্যে রয়েছে- ‘আম্মাজান’, ‘ত্রাস’, ‘দাঙ্গা’, ‘মনের সাথে যুদ্ধ’, ‘লাল বাদশা’, ‘বীর সৈনিক’, ‘এ দেশ কার’, ‘ভাইয়ের শত্রু ভাই’, ‘কঠিন পুরুষ’, ‘বাস্তব’, ‘রুস্তম’, ‘পাঞ্জা’, ‘ভাইয়া’ ইত্যাদি।