খালেদা জিয়ার কিছু হলে তার দায় সরকারকে নিতে হবে-সাবেক এমপি লালু

প্রেস রিলিজ-বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও কৃষকদল কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক এমপি মোঃ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে সরকারের উদ্দেশ্য রহস্যজনক, সরকার দেশনেত্রীর জীবন নিয়ে গভীর চক্রান্তে মেতে উঠেছে। দেশনেত্রী যাতে সুস্থ হতে না পারেন সে জন্যই বিদেশে উন্নত চিকিৎসার বিষয়ে গড়িমসি করছে। খালেদা জিয়ার কিছু হলে তার দায় সরকারকে নিতে হবে। খালেদা জিয়া এতটাই অসুস্থ তাকে দেশে চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হবে না। খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে শুধু নয়, তাকে জীবন থেকে নিশ্চিহ্ন করতে উঠে পরে লেগেছে সরকার। তিনি বলেন, শুধু স্বেচ্ছাসেবক দল নয়, যুবদল নয়, ছাত্রদল নয়, অঙ্গ সংগঠন নয়, বিএনপি নয়, সমগ্র বাংলাদেশের মানুষ আজ কারাগারে বাস করছে। শান্তি নেই, স্বস্তি নেই, মানুষ হাসিমুখে কথা বলতে পারে না। নিরাপদে রাস্তায় বের হতে পারে না। তাদের জীবন-জীবিকা চালাতে পারে না। ভয়াল একটি অবস্থার মধ্যে বাংলাদেশের মানুষ বাস করছে। বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ, অত্যান্ত অসুস্থ। প্রতিদিন চিকিৎসকরা তার জীবন রক্ষার জন্য সংগ্রাম করছেন। বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তার বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে রোববার বিকালে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বগুড়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, খালেদা জিয়াকে দেশের বাইরে চিকিৎসার সুযোগ দেয়া হচ্ছে না কেন? তার একটিই কারণ। বেগম খালেদা জিয়া একমাত্র নেত্রী তিনি জন্ম থেকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের মানুষের জন্য কাজ করছেন। মানুষের জন্য কথা বলেছেন। তিনি যখন বিরোধীদলীয় নেত্রী ছিলেন তখন ৯ বছর গণতন্ত্রের জন্য পথে পথে ঘুরে বেড়িয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তখন এই দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করেছেন। বগুড়া জেলা স্বেচাসেবক দলের আহ্বায়ক মাজেদুর রহমান জুয়েলের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহ্বায় সরকার মুকুলের সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও বগুড়া পৌরসভা মেয়র রেজাউল করিম বাদশা, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এম.আর ইসলাম স্বাধীন, কেএম খায়রুল বাশার, শেখ তাহা উদ্দিন নাইন, বিএনপি নেতা সাজ্জাদুজ্জামান সিরাজ জয়, বগুড়া জেলা যুবদলের আহ্বায়ক খাদেমুল ইসলাম খাদেম। আরো বক্তব্য রাখেন জেলা স্বেচ্ছাসেবদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য রাকিবুল ইসলাম শুভ, শহর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক জামিরুল ইসলাম শাওন, সদস্য সচিব হোসেন আলী, বগুড়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এ্যাড. হাসিবুল ইসলাম হাসিব, ফয়সাল রহমান শুভ, পারভেজ পশারী নাইস, সিহাব শাহরিয়ার রাসেল, আসিব মাহমুদ, সাঈদ সুলতান সজীব, গাবতলী উপজেলা সদস্য সচিব সুজা, শেরপুরের আহ্বায়ক কলিন্স, আদমদিঘীর আহ্বায়ক রুহুল, শেরপুর পৌর স্বেচ্ছাসেবকদলের আহ্বায়ক শাওন, কাহালু উপজেলা আহ্বায়ক আজাদ, সদস্য সচিব সুমন, সারিয়াকান্দি উপজেলা আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন দিপন, সদস্য সচিব সোহেল, সারিয়াকান্দি পৌর আহ্বায়ক সাকিব, দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক মান্নান, সান্তাহার পৌর মানিক ও লিয়ন সহ স্বেচ্ছাসেবক দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।