মার্কিন সুপ্রিমকোর্টে বিচারক হচ্ছেন প্রথম কোনো কৃষ্ণাঙ্গ নারী

যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিমকোর্টের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো কৃষ্ণাঙ্গ নারীকে বিচারক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এমন ঘোষণা দিয়েছেন। যাকে নিয়োগ দেওয়া হবে, তিনি উদারপন্থী বিচারক স্টিফিন ব্রেয়ারের স্থলাভিষিক্ত হবেন। আগামী জুনে তিনি অবসরগ্রহণ করবেন। স্টিফিন ব্রেয়ারকে সঙ্গে নিয়ে বাইডেন বলেন, তার জায়গায় যাকে বসানো হবে, তাকে অভিজ্ঞতা ও ন্যায়পরায়ণতার ভূমিকা রাখতে হবে। ফেব্রুয়ারির শেষে তিনি মনোনীত বিচারকের নাম ঘোষণা করবেন। ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কৃষ্ণাঙ্গদের ব্যাপক সমর্থন পেয়েছেন বাইডেন। এই নির্বাচনী প্রচারে তিনি বলেছিলেন, নির্বাচিত হলে কৃষ্ণাঙ্গ নারীকে সুপ্রিম কোর্টের বিচারক করবেন তিনি। এই প্রতিশ্রুতি অংশ হিসেবে তিনি কৃষ্ণাঙ্গ নারীকে বিচারক হিসেবে মনোনয়ন দিচ্ছেন। বাইডেন বলেন, সম্ভাব্য প্রার্থী কারা হতে পারেন, তাদের বিষয়ে আমি পড়াশোনা করছি। আমি কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিইনি। শুধু একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেটা হলো, যাকে আমি মনোনয়ন দেব, তিনি হবেন অসাধারণ, অভিজ্ঞ। বাইডেন মনোনয়ন দিলেই যে ওই ব্যক্তি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হয়ে যাবেন বিষয়টি এমন নয়। তার এই মনোনয়নের পর সিদ্ধান্ত নেবে কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেট। সিনেটের অনুমোদন পেলেই তবে বিচারক হতে পারবেন বাইডেনের মনোনীত প্রার্থী। নারী বিচারক হিসেবে ব্রাউন জ্যাকসন, লিওনার্ড ক্রুগার ও মিশেল চাইল্ডসের নাম শোনা যাচ্ছেন। বিচারপতি স্টিফেন ব্রেয়ারের ল ক্লার্কের কাজ করেছেন ব্রাউন জ্যাকসন। আর লিওনার্ড ক্যালিফোর্নিয়া সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি। এ ছাড়া সাউথ ক্যারোলাইনার ফেডারেল ডিস্ট্রিক্ট জজ মিশেল। তাকে ইতিমধ্যে ওয়াশিংটনের আপিল আদালতের বিচারক হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।