সহিংস উগ্রবাদ হ্রাসকরণে বগুড়ায় আন্তঃপ্রজন্ম সংলাপ অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার: সহিংস উগ্রবাদ হ্রাসকরণে এবং সকল প্রজন্মের ব্যক্তিবর্গের অংশগ্রহণে সামাজিক সচেতনতার বলয় গড়ার প্রত্যেয়ে বগুড়ায় পল্লী উন্নয়ন প্রকল্প (পিইউপি) এর আয়োজনে এবং রুপান্তরের সহযোগিতায় মঙ্গলবার শহরের ওয়াইএমসিএ হলরুমে দিনব্যাপী আন্তঃপ্রজন্ম সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মালতিনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং পিইউপি বগুড়ার প্রধান সমন্বয়কারী শেখ মো: আবু হাসানাত সাঈদ এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত সংলাপে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সমাজসেবা অধিদপ্তর বগুড়া জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আবু সাঈদ মো: কাউছার রহমান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, সহিংস উগ্রবাদ হ্রাসকরণে শুধু বাংলাদেশ নয় বিশে^র প্রতিটি দেশেই গুরত্বের সাথে সরকারি-বেসরকারি নানা কর্মসূচী পরিচালিত হয়। আর এক্ষেত্রে আন্তঃপ্রজন্ম সংলাপের আয়োজন সত্যিই একটি দূরদর্শী সিদ্ধান্ত। তিনি বলেন, তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে নিতে সরকার নানামুখী কর্মসূচী পরিচালনা করছে কিন্তু যেকোন ধরণের অপরাধে জড়িয়ে যাওয়ার প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা কিন্তু তাদের পরিবার থেকেই গড়ে তুলতে হবে। তিনি তরুণ প্রজন্মের সকলের সুষ্ঠুভাবে বেড়ে উঠার সকল ব্যবস্থা নিশ্চিত করার মাধ্যমে তাদের ইতিবাচক কার্যক্রমে অংশগ্রহণ নিশ্চিতের আহ্বান জানান সমাজের সকলের প্রতি।
ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও হেলভেটাস্ এর আর্থিক ও কারিগরি সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত এই কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বগুড়া সদর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) জাহিদুল হক, সহিংস উগ্রবাদ হ্রাসকরণে বগুড়ায় গঠিত প্লাটফর্ম সদস্য যথাক্রমে দৈনিক করতোয়ার বার্তা সম্পাদক প্রদীপ ভট্টাচার্য্য শংকর এবং শাজাহানপুর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হেফাজত আরা মিরা। পিইউপি বগুড়ার কর্মসূচী সমন্বয়কারী শেখ আবু রাহাত মো: মাশরুকুল ইসলাম এর সার্বিক পরিচালনায় এসময় রুপান্তরের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন রওনক বর্মন। কর্মশালার মুক্ত আলোচনায় সিভিল সোসাইটির প্রতিনিধি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক কর্মী সাদেকুর রহমান সুজন ও নিভা সরকার পূর্ণিমা, স্বপ্ন’র নির্বাহী পরিচালক জিয়াউর রহমান, আব্দুল খালেক, সাবেক পৌর কাউন্সিলর কানিজ রেজা, ব্রাক এর জেলা সমন্বয়ক বাবলী সুরাইয়া প্রমুখ। এছাড়াও যুব প্রতিনিধিদের মাঝে বক্তব্য রাখেন সহিংস উগ্রবাদ হ্রাসকরণে বগুড়ায় গঠিত প্লাটফর্ম সদস্য সাংবাদিক সঞ্জু রায়, নিলুফা ইয়াসমিন, আহসান হাবীব, আসলাম হোসাইন প্রমুখ।
কর্মশালায় যুবরা অভিভাবক সমতুল্য সিভিল সোসাইটির প্রতিনিধিদের কাছে সহিংস উগ্রবাদ প্রতিরোধে নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণের প্রস্তাব দেন। যেমন: খেলার মাঠের ব্যবস্থা, সন্তানদের সময় দেয়া, প্রযুক্তির অপব্যবহার রুখতে অভিভাবকদের সচেতন হওয়া, সন্তানদের ভাল বন্ধু নির্বাচনে সহযোগিতা করা, তাদের শিক্ষার পাশাপাশি ক্রীড়াঙ্গণ ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণের সুযোগ করে দেয়া, কাউকে অবহেলা না করে চিরতরে সকল ধরণের বৈষম্য দূরকরণে অগ্রণী ভূমিকা রাখাসহ নানা কথা বলেন যুবরা। এদিকে কর্মশালায় সিভিল সোসাইটির প্রতিনিধিরাও যুবদের অভিভাবকদের কথা মেনে চলার মাধ্যমে সকল নেতিবাচক দিকগুলোকে পরিহারের আহ্বান জানান। এছাড়াও প্রকৃত মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে করণীয় সকলকিছু নিজেই করার মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীল হওয়ারও পরামর্শ দেন।

সর্বশেষ সংবাদ