শিবগঞ্জে ট্রাক শ্রমিকের চাঁদার টাকা ভাগ বাটোয়ারার বিরোধে ছুরিকাঘাতে শ্রমিক নেতা খুন

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি বগুড়ার শিবগঞ্জে আধিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে শহিদুল ইসলাম নামে এক ট্রাকশ্রমিক নেতা খুন হয়েছে। নিহত শহিদুল ইসলাম (৫৫) কিচক বন্দর বিএনপির সাবেক সভাপতি বেলাই টেংগারপাড়া গ্রামের মৃত আফাজ উদ্দিনের ছেলে। তিনি আন্ত:জেলা ট্রাক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের কিচক শাখার সাধারণ সম্পাদক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কিচক বাজারে নিজ শ্রমিক সংগঠনের কার্যালয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা করার সময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আকস্মিক হামলা চালিয়ে তাকে ছুরিকাঘাত করেন। স্থানীয়রা তাকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গেলে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক কয়েক জন বলেন, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম কে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দিয়ে মোসলেম উদ্দিনকে অত্র সংগঠনের সভাপতি ও কিচক ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ নতুন সাধারণ সম্পাদক মনোনিত করেন। এতে দু’পক্ষের চরম উত্তেজনা বিরাজ করে।একপর্যায়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সময় সাধারণ সম্পাদককে প্রতিপক্ষের লোকজনেরা তার শ্রমিক সংগঠনের কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ছুরিকাঘাত করে।
এব্যাপারে নিহত শহিদুল ইসলাম এর স্ত্রী জাহানারা বেগম বলেন, আমার স্বামীকে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে পদ ত্যাগ করতে বলে। সে অস্বীকৃতি জানালে সংগঠনের সভাপতি আবু সাইদ, শ্রমিক নেতা ইয়াকুব আলী সহ ৮/১০ মিলে পরিকল্পিত ভাবে আমার স্বামীকে ছুরিকাঘাত করে খুন করে। তিনি আরো বলেন, শ্রমিক সংগঠনের দৈনিক চাঁদার টাকা তুলে তারা ভাগ বাটোয়ারা করে নেয়, আমার স্বামী এর প্রতিবাদ করলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে এ ঘটনা ঘটায়।
এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক কুমার দাস বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নেয় এবং ঘটনাস্থল থেকে ১ জনকে আটক করে। আটকৃত হলেন নিহত শহিদুল ইসলাম এর শ্যালক আমিরুল ইসলাম (৪০)। এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।