গলায় ছুরি ধরে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ

বাগেরহাটে স্কুলছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী ৪ বখাটের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি স্বজনদের। পুলিশ বলছে, অপরাধীদের ধরতে চলছে অভিযান। বাগেরহাটের কচুয়ায় বৃদ্ধ ফুফুর কাছে নবম শ্রেণির মেয়েকে রেখে খুলনায় বেড়াতে যান বাবা-মা। স্বজনদের অভিযোগ— বৃহস্পতিবার রাতে প্রতিবেশী এজাজুল মোল্লা, সোহেল শেখ, টিপু শেখ ও সজিব মোল্লা ঘরে ঢুকে গলায় ছুরি ধরে হত্যার ভয় দেখিয়ে পালাক্রমে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় তারা। পরদিন সকালে বাড়িতে ফিরে ঘটনা জেনে দ্রুত মেয়েকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন বাবা-মা। ভিকটিমের মা বাবা বলেন, আমার মেয়ের এই অবস্থা যারা করেছে তারা যেন কঠোর শাস্তি পায়। ধর্ষণের আলামত পাওয়ার কথা জানিয়েছেন চিকিৎসক ও নার্স। চিকিৎসক ডা. মো. মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, আমরা ভিকটিমের জন্য সব ধরনের চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি। পুলিশ বলছে, অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান চলছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আছাদুজ্জামান বলেন, আমরা আশা করছি, দ্রুত আসামিদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হব। জড়িত ৪ বখাটকে দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বজন ও এলাকাবাসী।