ঝিনাইদহে পৃথক ঘটনায় তিন জনের মৃত্যু

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় সাব জজ-৩ আদালতের পেশকার পার্থ সারথী বিশ্বাস (৫০) নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কে মধুপুর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তার বাড়ি ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার খালফলিয়া গ্রামে। ইবি থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান রতন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। দুর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা রেজা আহমেদ জয় জানিয়েছেন, নিহত ব্যক্তি কুষ্টিয়া থেকে মোটরসাইকেলে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। ট্রাকচাপায় ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে ঝিনাইদহে ঝড়ের বাতাসে ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। সে শৈলকুপা উপজেলার কবিরপুর গ্রামের মৃত মুরালী মোহন সাহার ছেলে। জানা গেছে, অনেক দিন যাবত নিতাই সাহা কবিরপুর থেকে এসে শহরের গীতাঞ্জলী সড়কে জামাইয়ের বাসায় থাকতো। রাতে হঠাৎ ঝড় শুরু হলে পাঁচ তলা ভবনের ছাদে কিছু ইট পলিথিন দিয়ে ঢাকতে যায়। এ সময় বাতাসে ছাদ থেকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। আবার কোটচাঁদপুর গোসল করতে পানিতে নেমে গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুর ৩টার দিকে কোটচাঁদপুরের সলেমানপুর পুকুরপাড়া নিবাসী ভ্যান চালক ছমির হোসেনের স্ত্রী ও ৩ বছরের মেয়ে সন্তানের জননী নুরী বেগম (২২) স্থানীয় সরকারী পুকুরে প্রতিদিনকার ন্যায় গোসল করতে যাই। অনেক সময় পেরিয়ে যাই কিন্তু আর বাড়ি ফিরে আসে না। অনেক খোঁজাখুঁজির পর এলাকার লোকজন বিকাল ৫টার দিকে তরোজাল দিয়ে জাল ফেলে পুকুর থেকে গৃহবধু নুরী বেগমের মৃত দেহ উদ্ধার করে। এ বিষয়ে কোটচাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মঈন উদ্দিন এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, ঘটনাটি শুনেছি কিন্তু এ বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করে নাই। গৃহবধু নুরী বেগমের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছাড়া নেমে এসেছে। এছাড়া এর আগেও কয়েকটি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে এই পুকুরে।