ঘোড়াঘাটে এক আদিবাসী মহিলার বসত বাড়ি জবর দখল থানায় অভিযোগ

মাহতাব উদ্দিন আল মাহমুদ,ঘোড়াঘাট(দিনাজপুর)-দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার আবিরের পাড়ায় এক আদিবাসী মহিলার বসতবাড়িতে মাটি ভরাট করে জবর দখল করে নিয়েছে প্রতিপক্ষরা। এ ষিষয়ে ওই মহিলা বাদী হয়ে ৩ জনের বিরুদ্ধে ঘোড়াঘাট থানায় অভিযোগ দাখিল করেছে।
ঘোড়াঘাট উপজেলার আবিরের পাড়া গ্রামের ভুক্তভোগী আদিবাসী মহিলা শ্রীমতি মুঙ্গলী মুরমুর থানার অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, ঘোড়াঘাট উপজেলার আবিরের পাড়া গ্রামের আদিবাসী লক্ষণ মুরমু গত ২৩.০৬.২০১৭ ইং তারিখে বসত বাড়িসহ আবিরের পাড়া মৌজার আবাদি জমি তার মেয়ে ও স্ত্রীর নামে উইলস নামা দলিল লিখে দেন। লক্ষণ মুরমুর মৃত্যুর পর মেয়ে ও স্ত্রী তারা তাদের নামে চলমান জরিপে তাদের নামে মাঠ পর্চা করে নেয় ও নাম খারিজ করে সন সন খাজনা প্রদান করে ওই জমি ভোগ দখল করে আসছিল। এমতাবস্থায় এক গ্রামের আদিবাসী মৃত, ছোটকা কিস্কুর পুত্র রবিন, সরদার মার্ডির পুত্র বাবুরাম মার্ডি মুঙ্গলী মুরমু ও তার মায়ের নামে দেয়া জমির একটি দলিল সৃষ্টি করে দলিল সৃষ্টি করে ১ একর ৩৫ শতক জমি জবর দখল করে। তারা ওই জমি উপজেলার বিরাহিমপুর গুচ্ছগ্রাম এলাকার মৃত, হারুন মোল্লার পুত্র শুকুর আলীর নিকট কবলা দলিল মুলে বিক্রি করে দেয়। শুকুর আলী ওই কবলা দলিল মুলে জমি দখল করে নেয়। পরবর্তিতে ২০১৭ সালে শুকুর আলী ওই জমি থেকে ভেকু দ্বারা মাটি কাটা শুরু করে। মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ার সময় মুঙ্গলী মুরমু বাধা দেয়। বাধা উপেক্ষা করে মাটি কাটা ্অব্যাহত রাখে। মুঙ্গলী মুরমু গত ২৬.০৫২০১৭ ইং তারিখে দিনাজপুর জেলা অতিরিক্ত জজ আদালতে শুকুর আলীসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে প্রোসেডিং মামলা দায়ের করে। মামলাটি চলমান রয়েছে। এ ্অবস্থায় সম্প্রতি শুকুর আলী মুঙ্গলী মুরমুর বসতবাড়িতে জোর পুর্বক ট্রাক্টর দ্বারা মাটি ভরাট করা শুরু করে। মুঙ্গলী সে সময় বাধা দিলে তাকে বিভিন্ন হুমকি দেয়। ফলে সে বাদি হয়ে ৩ জনের বিরুদ্ধে ঘোড়াঘাট থানায় অভিযোগ দাখিল করে।

সর্বশেষ সংবাদ