তরুণীকে পুড়িয়ে মারতে বাড়িতে আগুন প্রেমিকের, নিহত ৭

বিয়ে করতে চেয়েছিলেন পাশের ফ্ল্যাটেরই এক তরুণীকে। কিন্তু তিনি বিশেষ পাত্তা দেননি। ক্ষোভের বশে তরুণীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টায় বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেন ‘প্রেমিক’। এতে তরুণী বেঁচে গেলেও আগুনে ঝলসে নিহত হয়েছেন সেই ভবনের ৭ জন। অভিযুক্ত সঞ্জয় দীক্ষিত ওরফে শুভমকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। শনিবার ভোরে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ইনদওরের বিজয়নগরে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, বিজয়নগরের ওই ভবনে ভাড়া থাকতেন শুভম। কয়েক মাস আগে সেখান থেকে অন্যত্র চলে যান। ওই কমপ্লেক্সে থাকার সময় পাশের ফ্‌লাটের এক তরুণীর প্রেমে পড়েন তিনি। তাকে বিয়ে করার প্রস্তাবও দেন। কিন্তু তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন। এরপর শুভম যখন জানতে পারেন যে তরুণীর অন্যত্র বিয়ে হচ্ছে, তখন প্রতিশোধ নেওয়ার পরিকল্পনা করেন। পুলিশের ধারণা, সেই রাগের বশেই ভবনের গ্যারাজে রাখা তরুণীর স্কুটারে আগুন লাগিয়ে দেন শুভম। তখন সবাই ঘুমে আচ্ছন্ন ছিলেন। স্কুটারের আগুন ধীরে ধীরে ভবনের ভিতর ছড়িয়ে পড়লে প্রাণ বাঁচানোর জন্য অনেকেই হুড়োহুড়ি করে ভবন থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু ততক্ষণে আগুন অনেকটাই ছড়িয়ে পড়ে। এতে ভবনের বাসিন্দাদের কয়েকজন ব্যালকনি থেকে ঝাঁপ মেরে প্রাণে বাঁচলেও সাত জন নিহত হন।

সর্বশেষ সংবাদ