জনতার শক্তির কাছে কোনো শক্তি টিকতে পারবে না-সোহরাব উদ্দিন

বিএনপির কেন্দ্রীয় ঘোষিত ১৪ই মে ২০২২ইং বিক্ষোভ কর্মসূচীর প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১টায় কুষ্টিয়া শহরস্থ বিএনপির নেতৃবৃন্দ ও সকল অঙ্গ সংগঠনের প্রস্তুতি সভা বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির সভাপতি, দলনেতা, সাবেক এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক, কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক, সাবেক এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি বশিরুল আলম চাদ, সহ-সভাপতি কুতুব উদ্দিন আহম্মেদ, যুগ্ম-সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম রিন্টু, যুগ্ম-সম্পাদক একে বিশ্বাস বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. শামিমুল হাসান অপু, আব্দুল মুঈদ বাবুল, খন্দকার শামসুজ্জাহিদ, কুমারখালী উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব এ্যাড. শাতিল মাহমুদ, জেলা যুবদলের সভাপতি আল আমিন রানা, সিনিয়র সহ-সভাপতি মেজবাউর রহমান পিন্টু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আব্দুল হাকিম মাসুদ, মহিলা দলের সভাপতি কুমকুম রহমান, জেলা জাসাস এর সভাপতি ইমরান আহম্মেদ সঞ্জু, জেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান রঞ্জু, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস, সহ-সভাপতি তাইজাল আলী, জেলা মৎস্যজীবি দলের আহবায়ক অধ্যাপক নুরুল ইসলাম আসাদ, জেলা কৃষকদলের যুগ্ম-সম্পাদক ফরহাদ আহমেদ, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মাহফুজুর রহমান মিথুন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রোকনুজ্জামান রাসেল। সভায় মেহেদী রুমী বলেন, সরকারের সীমাহিন লুটপাট ও দুর্নীতির কারণে দেশের অর্থনীতি আজ বিধ্বস্ত। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে জনজীবন আজ দুর্বিষহ। এভাবে কোন দেশ চলতে পারেনা। দেশের প্রতিটি সেক্টরে নিজেদের দলীয় লোক নিয়োগ দেয়ায় বাজারে সিন্ডিকেট সৃষ্টি হয়েছে। সয়াবিন তেলের দাম প্রায় ২০০ টাকা। জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বিধায় এই সরকারের জনগণের প্রতি কোন দায়বদ্ধতা নেই। ফ্যাসিস্ট সরকারের হাত থেকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হলে জনতার সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। ১৪মে বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করতে সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সোহরাব উদ্দিন তার বক্তব্য বলেন, জেলা বিএনপি ঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশকে সর্বাত্মকভাবে সফল করতে হবে। সময় থাকতে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা নিন। জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিন। তাহলে বাংলাদেশের জনগণ শ্রীলংকার জনগণের মতো হবে না। জনতার শক্তির কাছে কোনো শক্তি টিকতে পারবে না। আসুন, তারেক রহমানের নেতৃত্বে রাজপথে নামার প্রস্তুতি নিন।