তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিবে না-বাদশা

দুপচাঁচিয়া(বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকার দেশে দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতা কায়েম করে চলেছে। দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতা করেও আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা সহজেই পার পেয়ে যায়। অথচ বিএনপি নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে সামান্য কিছু হলেই সরকার দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারী করে। তাই জুলুমবাজ আওয়ামীলীগ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন নয়, একমাত্র তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই বিএনপি নির্বাচনে যাবে। তাই বিএনপির মতো গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল দলীয় নেতা নির্বাচনের ক্ষেত্রেও তৃণমুল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে নেতা নির্বাচন করে থাকে। তিনি আরও বলেন, সেদিন আর বেশি দূরে নয়, যেদিন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বীরবেশে এদেশে আসবে। এজন্য বিএনপির নেতাকর্মীদের সকল জুলুম নির্যাতন উপেক্ষা করে লড়াই সংগ্রামের মাধ্যমে এসরকারের পতন ঘটিয়ে নিদর্লীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মাধ্যমে একটি গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে ইনশাল্লাহ। গত ১৪মে শনিবার সকালে দুপচাঁচিয়া উপজেলা ও পৌর বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক ও বগুড়া পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম বাদশা। দুপচাঁচিয়া উপজেলা ও পৌর বিএনপির আয়োজনে সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক এএইচএম নুরুল ইসলাম খান হিরুর সভাপতিত্বে ও উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মোজাফ্ফর রহমান টিটুর পরিচালনায় সম্মেলনে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক এ্যাড. একেএম সাইফুল ইসলাম। বিশেষ বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল। উদ্বোধকের বক্তব্য রাখেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক কাহালু-নন্দীগ্রাম এলাকার সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য জয়নাল আবেদীন চাঁন, জেলা বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য লাভলী রহমান, জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির, জেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি আব্দুল মহিত তালুকদার, জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য এমআর ইসলাম স্বাধীন, বগুড়া শহর বিএনপির সভাপতি ও জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য এ্যাড. হামিদুল হক চৌধুরী হিরু, জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য মোর্শেদ মিণ্টন, একেএম তৌহিদুল আলম মামুন, শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, জেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা নাজমা আক্তার, জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের যুগ্ম আহবায়ক সরকার মুকুল। এসময় জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন এবং দুপচাঁচিয়া উপজেলা, পৌর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সম্মেলনের সভা চলাকালে মঞ্চের পাশেই নবরত্ন সংঘে শুধুমাত্র উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক পদে ব্যালটের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে প্রধান অতিথি উপজেলা বিএনপির সভাপতি পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় একেএম মনিরুল ইসলাম খান স্বপন, সাধারণ সম্পাদক পদে ভোটের মাধ্যমে আব্দুর রহিম, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাংগঠনিক সম্পাদক পদে যথাক্রমে মেশকাতুর রহমান, জান্নাতুল ফেরদৌস এবং বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পৌর বিএনপির সভাপতি পদে গোলাম ফারুক, সাধারণ সম্পাদক পদে আখতারুজ্জামান তুহিন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে যথাক্রমে জাহিদুল হক তালুকদার কাজল ও ইউনুছ আলী মহলদার মানিকের নাম ঘোষণা করেন।