ঘোড়াঘাট হাসপাতাল থেকে মরদেহ উদ্ধার

মাহতাব উদ্দিন আল মাহমুদ,ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর)-দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা হাসপাতাল থেকে রাফেল নামের এক ব্যক্তির মরাদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। সোমবার সকাল ৯টায় ঘোড়াঘাট হাসপাতাল থেকে মর দেহটি উদ্ধার করে থানা পুলিশ। হাসপাতাল সুত্রে জানা যায়, সোমবার ভোরে রাফেলকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার সকাল ৯টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। এ সংবাদ শুনে লাশের স্বজনরা লাশ ফেলে পালিয়ে যায়।
পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মুঠো ফোনে থানা পুলিশকে সংবাদ দিলে, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে । এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার কুমারপুর গ্রামের আঃ লতিফের পুত্র রাফেল গত এক বছর পুর্বে কুমারপুর থেকে রাফেল মিয়া ঘোড়াঘাট উপজেলার শ্রীহরি বিহরি গ্রামে বসবাস শুরু করেন। পরে ঘোড়াঘাট উপজেলার রানীগঞ্জ বাজার এলাকায় লাভলী বেগমকে ২য় বিয়ে করেন ।
সেই থেকে সে বড় ভায়রার বাড়ীতে ২য় স্ত্রীর সাথে বসবাস করতেন। রবিবার রাতে খাওয়া দাওয়া শেষে ২য় স্ত্রী লাভলী বেগম ও বড় বোনের সাথে রাফেলের ঝগড়া হয়। এরই সুত্র ধরে রাফেল কিটনাশক পান করলে তাকে ঘোড়াঘাট হাসপাতালে ভর্তি করে। রাফেলের লাশ ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘোড়াঘাট থানার ্অফিসার ইনচার্জ আবু হাসান কবির বলেন, এটি হত্যা না আত্ম হত্যা তদন্ত রিপোর্টে জানা যাবে। এ ঘটনায় প্রাথমিক ভাবে থানায় একটি ইউডি মামলা রুজু করা হয়েছে।