যে কারণে যাত্রাপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর মোটরসাইকেল উপহার পেলেন

সাইফুর রহমান শামীম,কুড়িগ্রাম-গত বছরের ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সারাদেশের ন্যায় কুড়িগ্রাম সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়নেও ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এদিন চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করা আব্দুল গফুর সর্বোচ্চ ভোট পেলেও বিজয়ী ঘোষণা নিয়ে তৈরী হয় নানা জটিলতা। সেই জটিলতার পর অবশেষে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক সরকারি বিজ্ঞাপন তথা গেজেট প্রকাশ হয় ১৬ মে সোমবার। দিনটিকে স্মরনীয় করতে জেলা সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানকে উপহার হিসেবে দেয়া হলো ১৫০ সিসির পালসার মোটরসাইকেল । নির্বাচনের প্রায় ছয় মাস পর গেজেট প্রকাশ হওয়ার আনন্দে ইউনিয়ন বাসী ও সমর্থক মিলে মঙ্গলবার(১৭ মে) বিকেলে উক্ত ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান কে এ উপহার প্রদান করেন। সংশ্লিষ্ট সুত্র থেকে জানা যায়, যাত্রাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে অনুষ্ঠিত হলেও নানা জটিলতার পর অবশেষে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক সরকারি গেজেট প্রকাশ হয় ১৬ মে সোমবার। এ আনন্দে ১৭ মে মঙ্গলবার তার সমর্থক ও ইউনিয়ন বাসীর অনেকে মিলে কুড়িগ্রাম জেলা সদর থেকে ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা মূল্যমানের একটি পালসার মোটরসাইকেল ইউনিয়ন বাসীর অনেকের উপস্থিতিতে বিকেলে তার নিকট হস্তান্তর করেন। এসময় উক্ত ইউনিয়নের বাসিন্দা নজির হোসেন মিস্ত্রী, রফিকুল ইসলাম মাস্টার, বিপুল রহমান, নজরুল ইসলাম, আজিবর রহমান, তাজুল ইসলাম আলম মিয়া, ইসমাইল হোসেন, আবুল হোসেন, চরের আমজাদ হোসেন, মাসুদ মিয়া সহ অন্যরা বলেন আমরা দীর্ঘদিন পর আমাদের প্রতীক্ষিত চেয়ারম্যানকে পেয়েছি এ কারণে সকলে মিলে খুশিমনে আমাদের টাকায় আমরা চেয়ারম্যান সাহেবকে একটি মোটরসাইকেল উপহার দিতে পেরে আনন্দিত। চেয়ারম্যান পুত্র ওমর ফারুক বলেন আনন্দ এখন এলাকাবাসী সকলের শুধু আমার বাবার আমাদের পরিবারের নয়। উপহার পাওয়া যাত্রাপুর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল গফুর বলেন,’আসলে এলাকাবাসী আমাকে এতটাই ভালোবাসে যে, দীর্ঘদিন তারা অপেক্ষা করছিল,অবশেষে প্রত্যাশিত ফল পেয়েছে, তারাই খুশি হয়ে আমাকে এ উপহার দিয়েছে, আমি যেন তাদের পাশে থেকে সুখে-দুখে এগিয়ে গিয়ে সেই ভালবাসার প্রতিদান দিতে পারি আল্লাহর কাছে এমন প্রত্যাশা করি।