দূর্নীতির মামলায় বগুড়ার বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য জ্যোতিকে ৭ বছর কারাদন্ড ৫৩ লাখ টাকা জরিমানা

দূর্নীতির একটি মামলায় বগুড়ার সংরক্ষিত আসনের বিএনপি দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য নুর আফরোজ বেগম জ্যোতিকে ৭ বছর কারাদন্ড ও ৫৩ লাখ টাকা জরিমানা করেছে বগুড়ার বিশেষ আদালত। বৃহস্পতিবার বিকেলে এ রায় দেন বিচারক এমরান হোসেন চৌধুরী।
জানা গেছে, প্রায় ২৯ লাখ টাকার তথ্য গোপন ও প্রায় ৫০ লাখ টাকার জ্ঞাত আয় বহিভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দূর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কর্মকর্তা ফারুক আহম্মেদ ২০১৪ সালে বগুড়া সদর থানায় এ মামলা দায়ের করেন। পরে তদন্ত করে একমাত্র আসামী জ্যোতির বিরুদ্ধে চার্জসীট দেন দুদক উপ-পরিচালক মো: আনোয়ারুল হক।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, সাবেক সাংসদ জ্যোতি ঢাকায় একটি ফ্লাট কম দামে কেনা দেখিয়ে তথ্য গোপন করেন ২৬ লাখ ৫১ হাজার টাকার। তার মোট সম্পদ ১ কোটি ২৯ লাখ ৮১ হাজার টাকা।
বগুড়ার স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক এমরান হোসেন চৌধুরী বৃহস্পতিবার বিকেলে সাড়ে ৪ টার দিকে এই রায় দেন বলে দুদকের আইনজীবী আবুল কালাম আজাদ গণমাধ্যমকে  নিশ্চিত করেছেন।
উল্লেখ্য, নুর আফরোজ বেগম জ্যোতি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ও বগুড়া জেলা বিএনপির সাবেক উপদেষ্টা ছিলেন। তিনি অষ্টম জাতীয় সংসদের (সংরক্ষিত) মহিলা আসন-১ থেকে মনোনীত সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন।